মামলা দ্রুত নিষ্পত্তির জন্য অর্পিত সম্পত্তি প্রত্যর্পণ আইন সংশোধন করে অধ্যাদেশ আকারে জারি করছে সরকার

    0
    459

    মামলা দ্রুত নিষ্পত্তির জন্য ট্রাইব্যুনালের সংখ্যা বাড়িয়ে অর্পিত সম্পত্তি প্রত্যর্পণ আইন সংশোধন করে অধ্যাদেশ আকারে জারি করছে সরকার। PM news

    প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে সোমবার মন্ত্রিসভার বৈঠকে এ প্রস্তাবে চূড়ান্ত অনুমোদন দেয়া হয়।

    বৈঠকের পর মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ মোশাররাফ হোসাইন ভূইঞা জানান, এখন সংসদ অধিবেশন না থাকায় সংশোধিত আইনটি রাষ্ট্রপতির অধ্যাদেশ আকারে জারি করা হবে। পরে সংসদে তা পাস করা হবে।  

    তিনি বলেন, “এ সংক্রান্ত মামলা নিস্পত্তি দ্রুত ও সহজে করার জন্যই আবারো আইনটি সংশোধন করা হয়েছে।”

    দুটি ‘ক্যাটাগরিতে’ অর্পিত সম্পত্তির তালিকা রয়েছে জানিয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, ‘ক’ তালিকাভুক্ত সম্পত্তি সরকারের দখলে রয়েছে বা  ইজারা দেয়া হয়েছে। আর ‘খ’ তালিকার সম্পত্তি সরকারের দখলে বা ইজারায় নেই।

    ২০০১ সালের এ আইনে তিনটি সংশোধনী আনা হয়েছে জানিয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, ‘ক’ তালিকাভুক্ত সম্পত্তি নিয়ে মামলা নিষ্পত্তিতে ৬১টি জেলায় একটি করে ‘অর্পিত সম্পত্তি প্রর্ত্যপণ আদালত (ট্রাইব্যুনাল) এবং আপিল ট্রাইব্যুনাল করার কথা বলা রয়েছে আইনে।

    বিদ্যমান আইন অনুযায়ী মূল ট্রাইব্যুনাল পরিচালনা করতো জেলা জজ আদালত, আর আপিল করতে হতো সুপ্রিম কোর্টে।

    আইনের এই ধারাটি সংশোধন করে মামলা দ্রুত নিষ্পত্তির জন্য অতরিক্তি জেলা জজ ও সেশন জজদেরও আদালত পরিচালনার ক্ষমতা দেয়া হবে। আর আপিল নিষ্পত্তি করবে জেলা দায়রা জজ। এর ফলে আদালতের সংখ্যা বাড়বে এবং মামলার নিস্পত্তি দ্রুততর হবে মন্তব্য করেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব।