মালয়েশিয়ার রূপকার ডা: মাহাথির মোহাম্মদ এখন প্রায় সুস্থ

0
394
মালয়েশিয়ার রূপকার ডা: মাহাথির মোহাম্মদ এখন প্রায় সুস্থ
মালয়েশিয়ার রূপকার ডা: মাহাথির মোহাম্মদ

আমার সিলেট ডেস্কঃ মৃত্যুর গুজব উড়িয়ে দিয়ে আধুনিক মালয়েশিয়ার রূপকার ডা: মাহাথির মোহাম্মদ এখন প্রায় সুস্থ। স্বাভাবিকভাবে হাঁটাচলা ও খাওয়া-দাওয়া করছেন তিনি। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, মাহাথির মোহাম্মদ এখন আগের চেয়ে অনেকটাই সুস্থ হয়েছেন এবং আশঙ্কামুক্ত। বুধবারই (২৬ জানুয়ারি) তাকে করোনারি কেয়ার ইউনিট থেকে সাধারণ ওয়ার্ডে স্থানান্তর করা হয়েছে। নিয়মিত খাবার গ্রহণ ও স্বাভাবিকভাবেই হাঁটাচলা করছেন তিনি।

বিষয়টি স্থানীয় সংবাদমাধ্যমে নিশ্চিত করেছেন মাহাথিরের বড় মেয়ে দাতিন পাদুকা মেরিনা মাহাথির। মাহাথির মালয়েশিয়ার সাবেক সরকার প্রধান হলেও দক্ষিণ এশিয়া ও বাংলাদেশসহ মুসলিম জগতে তুমুল জনপ্রিয় একজন নেতা। বিশেষ করে রোহিঙ্গা ও ফিলিস্তিনের জেনোসাইডের বিরুদ্ধে তার তীব্র প্রতিবাদে সোচ্চার হওয়ার বিষয়টি রয়েছে।

এদিকে বুধবার ও এর আগের দিন বাংলাদেশের সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে একটি গুজব ভাইরাল হয়েছে যে, মাহাথির মোহাম্মদ মারা গেছেন। পরে কোনো সংবাদ মাধ্যমে মাহাথিরের মৃত্যুর খবর প্রকাশিত না হওয়ায় সবার টনক নড়ে। অনকেই মালয়েশিয়ায় থাকা স্বজনদের কাছে ফোন করে জানতে চেয়েছেন মাহাথির জীবিত না মৃত ? অবশেষে সবাইকে তাক লাগিয়ে তিনি এখন হসপিটালের লনে হাঁটছেন।

এ দিকে মাহাথিরকন্যা জানান, তার পিতা আগের থেকে অনেকটাই নিরাপদ ও আশঙ্কামুক্ত। বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, মাহাথির চিকিৎসক ও নার্সদের সাথে হাসি ঠাট্টায় মেতেছেন।

মেরিনা আরও বলেন, রিকভারির জন্য তিনি এখন বেশি বেশি খাবার খাচ্ছেন। এতে চিকিৎসক ও পরিবার মহাখুশি। তারা হাসি-ঠাট্টা করছেন। বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের আন্তরিক প্রচেষ্টায় দ্রুত সুস্থ হয়ে স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরছেন তিনি। চিকিৎসকসহ যারা তার বাবার জন্য দোয়া করেছেন, দেশ-বিদেশের সকল শুভাকাঙ্ক্ষীর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন মাহাথিরকন্যা মেরিনা।

দক্ষিণ এশিয়ার শক্তিশালী রাজনীতিবিদ ৯৬ বছর বয়সী ডা: মাহাথির মোহাম্মদ গত ৭ জানুয়ারি বুকের সমস্যা নিয়ে দেশটির ন্যাশনাল হার্ট ইনস্টিটিউটে ভর্তি হন। সিসিউতে নিবিড় পরিচর্যায় ছিলেন। প্রথমদিকে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা জানিয়েছেন তার অবস্থা স্থিতিশীল। তখন স্থানীয় গণমাধ্যমকর্মীরা হাসপাতালের সামনে ভিড় জমিয়েছিলেন। সে সময় মাহাথির কন্যা মেরিনা তার বাবার জন্য দোয়া করার অনুরোধ জানিয়ে বলেছিলেন, “সবাই দোয়া করুন, আর এমন কোন খবর প্রচার করবেন না যাতে আমরা উদ্বিঘ্ন হই।“

প্রসঙ্গত,ডা. মাহাথির মোহাম্মদ। জন্ম (১০জুলাই, ১৯২৫) মালয়েশিয়ার সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও আধুনিক মালয়েশিয়ার স্থপতি। তিনি ১৯৮১ সালে মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব গ্রহণ করেন। তার নেতৃত্বে ক্ষমতাসীন দল পর পর পাঁচবার সংসদ নির্বাচনে জয়ী হয়ে সরকার গঠন করে। তিনি এশিয়ার সবচেয়ে দীর্ঘ সময় ধরে গণতান্ত্রিক ভাবে নির্বাচিত প্রধানমন্ত্রী ছিলেন। ২০০৩ সালের ৩০শে অক্টোবর তিনি স্বেচ্ছায় প্রধানমন্ত্রীর পদ ছেড়ে দেন। অবসর গ্রহণের দীর্ঘ পনের বছর পর ৯২ বছর বয়েসে প্রধানমন্ত্রী নাজিব রাজাকের ব্যাপক দুর্নীতি সংশ্লিষ্টতার কারণে মাহাথির মোহাম্মদ আবারও আসেন রাজনীতিতে। ২০১৮ সালের ৯মে অনুষ্ঠেয় সাধারণ নির্বাচনে জয়ের পরদিন ১০মে মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেন তিনি।