মিশরের সাবেক রাষ্ট্রপতি হোসনি মোবারক মুক্তি পেতে পারেন !

    0
    226

    আমার সিলেট ডেস্ক,২১ আগস্ট :মিশরের ক্ষমতাচ্যুত রাষ্ট্রপতি হোসনি মোবারক জামিন আবেদন করেছেন। প্রথম জামিন আবেদন খারিজ হয়ে যায়। পরবর্তীতে একই আদালতে জামিনের ওপর মোবারক রিভিউ আবেদন করেন। আদালত এ মুহূর্তে তার সে আবেদনের শুনানি বাকী রেখেছে। মনে করা হচ্ছে মিশর আদালতের আদেশে যে কোনো সময় মুক্তি পেতে পারেন সাবেক ক্ষমতাচ্যুত রাষ্ট্রপতি হোসনি ম

    মোবারকের বিরুদ্ধে মিশরের অন্দোলনকারীদের হত্যার অভিযোগ রয়েছে। ২০১১ সালের সেই আন্দোলনে মোবারকের স্বৈরশাসনের পতন ঘটে। নানা চড়াই উৎরাই পেরিয়ে সে বিচার এখন চলছে।সে যাই হোক মোবারকের আইনজীবীরা ভাবছে, তার বিরুদ্ধে আনিত দুনীতির অভিযোগ থেকে তিনি অব্যাহতি পাবেন। এদিকে ইউরোপীয় ইউনিয়নের পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা একত্রিত হয়েছে। এ মুহূর্তে মিশরকে এক বিলিয়ন ইউরো সমপরিমাণ জরুরী অর্থ সহায়তা  স্থগিত রাখা হয়েছে।

    ইউরোপীয় ইউনিয়ন সেনা সমর্থিত সরকারের বর্তমান দমন পীড়নকে নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে। তারা মুরসি সরকারকে হটানোর জন্য মিশর সেনাবাহিনীর তীব্র সমালোচনা করে।সাবেক রাষ্ট্রপতি হোসনি মোবারক ২০১১ সালে আন্দোলনকারীদের হত্যার ষড়যন্ত্র করেছিলেন। ২০১২ জুনে সে অভিযোগ আদালতে প্রমাণিত হলে তাকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড প্রদান করা হয়। সাজার বিরুদ্ধে আপীল করে মোবারক। যার বিচার চলতি বছরের মে মাস থেকে আবার শুরু হয়।

    মোবারকের মামলা পরিচালনাকারী আইনজীবী ফরিদ আল ডিভ বলেন, তার মক্কেলের বিরুদ্ধে একটি দুনীতির অভিযোগ রয়েছে। সে বাধা কেটে গেলে তিনি সহসাই মুক্তি পেতে পারেন।এদিকে মিশর সেনাবাহিনীর দমন মূলক আচরণে যুক্তরাষ্ট্র যৌথ সেনা মহড়া স্থগিত রেখেছে। সামরিক কিছু চুক্তিও স্থগিত রেখেছে বারাক ওবামা প্রশাসন। অন্যদিকে ইউরোপীয় ইউনিয়নের ৫ বিলিয়ন ইউরো  সাহায্যে দেয়া হবে কিনা তা পর্যালোচনা করা হচ্ছে। এভাবে সেনা সরকারকে বাইরে থেকে চাপ দেয়ার কৌশল নিয়েছে পশ্চিমা দেশ গুলো। বিবিসি