মিশরে মহিলা নিযার্তনের ফুটেজ মুছতে অস্বীকৃতি ইউটিউবের

    0
    252

    আমারসিলেট24ডটকম, ১৫জুনঃ সরকারের অনুরোধ সত্ত্বেও মিশরের তাহরির স্কয়ারের যৌন কেলেঙ্কারির ফুটেজ মুছতে অস্বীকৃতি জানিয়েছে ইউটিউব কর্তৃপক্ষ।

    ইউটিউব কর্তৃপক্ষ বলেছে, তারা ব্যক্তিগত গোপনীয়তাকে সম্মান জানায়। তবে কাউকে পরিষ্কারভাবে চিহ্নিত করা গেলে এবং তিনি ব্যক্তিগত গোপনীয়তার অভিযোগ তুললে অবশ্যই তার ছবি ও ভিডিও সরিয়ে নেওয়া হবে।

    সাবেক সেনা প্রধান আবদেল ফাত্তাহ আল সিসির মিশরের প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ গ্রহণ উপলক্ষে তাহরির স্কয়ারে বিপুলসংখ্যক সিসির সমর্থক জড়ো হয়েছিলেন। তাঁরা সেখানে আনন্দ-উৎসবে মেতে ওঠেন।ওই নারীকে সেখানেই নির্যাতন করা হয় এবং তাঁকে রক্তাক্ত ও বিবস্র অবস্থায় টেনে নিয়ে যাওয়ার ভিডিও ইউটিউবের মাধ্যমে ছড়িয়ে যায়।

    নয়া প্রেসিডেন্ট সিসি গত সপ্তাহে ওই নারীকে দেখতে হাসপাতালে যান। তিনি যৌন নির্যাতনের জন্য মিশরের সকল নারীদের কাছে ক্ষমা চান।

    প্রেসিডেন্ট সিসির একজন মুখপাত্র বলেছেন, রাষ্ট্রপতির সঙ্গে সাক্ষাতে ওই নারী সামাজিক মাধ্যম থেকে তাঁর নির্যাতনের ভিডিওচিত্রটি সরিয়ে নেওয়ার অনুরোধ করেছেন। পরে সরকারের পক্ষ থেকে ইউটিউব কর্তৃপক্ষের নির্যাতনের ছবি ও ভিডিও সরিয়ে নেওয়ার অনুরোধ করা হয়। ওই নারী ভিডিও চিত্রটি সরিয়ে নিতে বলেছেন বলেও ইউটিউবকে জানানো হয়। তবে ইউটিউব কর্তৃপক্ষ কায়রোর ওই অনুরোধ প্রত্যাখ্যান করেছেন।

    সে দেশের তাহরির স্কয়ারে নির্যাতনের ওই ছবি ও ভিডিও প্রচারের পর থেকেই যৌন নির্যাতনের ঘটনায় জড়িত ব্যক্তিদের শাস্তির দাবি উঠেছে। এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে ৭জনকে ইতিমধ্যে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে একটি আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যম থেকে জানা যায়।