মিশর মুসলিম ব্রাদারহুডের শীর্ষ আধ্যাত্মিক নেতা মোহাম্মদ বাদাই আটক

    0
    425

    আমার সিলেট ডেস্ক,২০ আগস্ট : মিশরে ক্ষমতাচ্যুত প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ মুরসির মুক্তি ও তাকে স্বপদে বহালের দাবিতে বিক্ষোভরত মুসলিম ব্রাদারহুডের শীর্ষ নেতা মোহাম্মদ বাদিইকে গ্রেপ্তার করেছে সেনা সমর্থিত বর্তমান সরকারের নিরাপত্তা বাহিনী। দেশটির স্থানীয় সময় ভোরে তাকে গ্রেপ্তার করা হয় বলে জানা গেছে। দেশটির রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যমের উদ্ধৃতি দিয়ে আজ মঙ্গলবার আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমগুলো এ তথ্য জানিয়েছে। গণমাধ্যমগুলো জানিয়েছে, আজ মঙ্গলবার মিশরের উত্তর কায়রোর নাসর শহরের একটি আবাসিক ফ্লাট থেকে মুসলিম ব্রাদারহুডের আধ্যাত্মিক নেতা মোহাম্মদ বাদিইকে (৭০) আটক করে নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা।গ্রেপ্তারের পর বাদিইকে কড়া নিরাপত্তার মধ্যদিয়ে কারাগারে নিয়ে যাওয়া হয়। মিশরের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ফেসবুক পেজেও বাদিইর গ্রেপ্তারের বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে। এর আগে, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মেদ ইব্রাহিম একটি স্থানীয় সংবাদপত্রকে বাদিইর গ্রেপ্তারের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।  বাদিইকে রাজধানী কায়রোর পূর্বাঞ্চলে নাসর শহরের একটি এপার্টমেন্টে আটক রাখা হয়েছিল বলে রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম জানিয়েছে।এদিকে গণমাধ্যমগুলো আরো জানায় বাদিইর ডেপুটি খাইরাত আল-সাতারকেও গ্রেপ্তার করা হয়েছে। চলতি মাসের শেষের দিকে তাদের বিচারের মুখোমুখি করা হবে। গত জুনমাসে কায়রোতে মুসলিম ব্রাদারহুডের কার্যালয়ের সামনে আট বিক্ষোভকারীকে হত্যার অভিযোগে অভিযুক্ত তারা। এছাড়া, ব্রাদারহুডের সিনিয়র নেতাদের অধিকাংশই এরইমধ্যে গ্রেপ্তার হয়েছেন।

    গত সপ্তাহে এর পাশেই এক রক্তক্ষয়ী অভিযানে বিক্ষোভকারীদের উচ্ছেদ করে নিরাপত্তা বাহিনী। তারা জানিয়েছে, বদিইর লুকিয়ে থাকা স্থানের খোঁজ পাওয়ার পরেই তাকে আটক করা হয়। মিশরের সেনা সমর্থিত একটি সম্প্রচার মাধ্যম জানিয়েছে, কড়া নিরাপত্তার মধ্যে বদিইকে কারাগারে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। বদিই ও তার অন্যতম সহযোগি খয়রাত এল শাতের বর্তমানে পুলিশি হেফাজতে রয়েছে। গত জুনে কায়রোতে অবস্থিত ব্রাদারহুডের প্রধান কার্যালয়ের সামনে ব্রাদারহুড বিরোধী আট প্রতিবাদকারী হত্যাকাণ্ডে কথিত ভূমিকা থাকার অভিযোগে এ মাসেই তাদের আদালতে তোলা হবে।
    মুরসির ক্ষমতাচ্যুতির পরে বাদিইকে মাত্র একবারই জনসম্মুখে দেখা গেছে। রাব্বা মসজিদের সামনে বিক্ষোভের সময় তাকে দেখা গিয়েছিল। এরপর থেকেই তিনি আত্মগোপন করেন। এখন তার গ্রেপ্তারের পর ব্রাদারহুডের অধিকাংশ নেতাই সেনা সমর্থিত সরকারের হাজতে রয়েছে। সম্প্রতি গত কয়েকদিনে ১’শর বেশি ব্রাদারহুড নেতাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।
    মিশরের সরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এর ফেইসবুক পেইজে বাদিইর একটি ছবি পোস্ট করে ক্যাপশনে তাকে গ্রেপ্তারের খবর নিশ্চিত করেছে। ক্যাপশনে তারা লিখেছে, পাবলিক প্রসিকিউটরের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী মুসলিম ব্রাদারহুড নেতা মোহাম্মদ বাদিইকে  গ্রেপ্তার করা হয়েছে। সংগৃহীত তথ্য ও পর্যবেক্ষণ অনুযায়ী কায়রোর নিরাপত্তা বাহিনীর অপরাধ তদন্তের নির্দেশনার মাধ্যমে তাকে গ্রেপ্তার করা সম্ভব হয়েছে।
    এর আগে গত শনিবার সেনা সমর্থিত মিশরীয় সরকারের বিরুদ্ধে প্রতিবাদে ডাকা ক্রোধের দিনে  রামসেস স্কয়ারে বিক্ষোভ করার সময় বুলেটবিদ্ধ হয়ে বাদিইর ছেলে আম্মর বাদিই (৩৮) নিহত হন।

    গত বুধবার থেকে বিক্ষোভকারীদের উচ্ছেদে চালানো নিরাপত্তা বাহিনীর অভিযানে ১০০ পুলিশসহ এখন পর্যন্ত প্রায় ৯০০ মানুষ নিহত হয়েছেন। গত রবিবারে কায়রোতে একটি প্রিজন ভ্যানে ইসলামপন্থী বিক্ষোভকারী সন্দেহে ৩৬ জন পুলিশ নিহত হয়। এদিকে,অব্যাহত সহিংসতার পরিপ্রেক্ষিতে মিশরে এখনো জরুরি অবস্থা জারি রয়েছে।