মৌলভীবাজারের শিশু বিশেষজ্ঞ ডাক্তার দেলোয়ার হোসেন এর ইন্তেকাল

0
170

আমার সিলেট রিপোর্ট: মৌলভীবাজারের সর্বজন পরিচিত শিশু বিশেষজ্ঞ ডাক্তার দেলোয়ার হোসেন আজ শুক্রবার ২৯ সেপ্টেম্বর বিকাল ৪ টায় মৌলভীবাজার শহরের শ্রীমঙ্গল রোডস্হ লাইফ লাইন হাসপাতালে ইন্তেকাল করেছেন-ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন।

জানা যায়, শিশু বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক ডাঃ দেলোয়ার হোসেন (৬২) মৌলভীবাজারে নিজের চেম্বার চলাকালীন সময়ে হার্টঅ্যাটাকে আক্রান্ত হন।

জানা যায়,শুক্রবার ২৯ সেপ্টেম্বর বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে শহরের হেলথ এইড ডায়াগনস্টিক সেন্টারে নিজ চেম্বারে বসে রুগীদের চেকআপ করার সময় বুকে ব্যথা অনুভব করলে নিয়ে যাওয়া হয় পাশের লাইফ লাইন কার্ডিয়াক হাসপাতালে। সেখানকার কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।

বিশেষজ্ঞ এ চিকিৎসকের অকাল মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে হেলথ এইড ডায়াগনস্টিক সেন্টারের পরিচালক মোঃ নাজমুল হক জানান, শুক্রবার রুগী দেখা অবস্থায় হার্টঅ্যাটাক করেন তিনি। পরে মারা যান লাইফ লাইন হাসপাতালে।

শিশু বিশেষজ্ঞ ডাঃ দেলোয়ার হোসেনের বাড়ি চাঁদপুর জেলায় বলে জানা গেছে। ১৯৯৩ সাল থেকে ২০০৯ সাল পর্যন্ত তিনি মৌলভীবাজার সদর ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে শিশু বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক হিসেবে দীর্ঘ সময় কর্মরত থেকে অত্যন্ত সাফল্যের সাথে চিকিৎসা সেবায় নিয়োজিত ছিলেন।

এরপর ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজে কর্মরত অবস্থায় অবসরে যান। পরবর্তীতে মৃত্যুর আগ পর্যন্ত তিনি ঢাকার বিশেষায়িত ইউনাইটেড হাসপাতালের সিনিয়র শিশু কনসালটেন্ট হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

বিশেষজ্ঞ এ চিকিৎসকের সহকর্মীরা জানান, তাঁর দীর্ঘ চিকিৎসা ক্যারিয়ারে অনেক সুনাম রয়েছে। এই সময়ে সবচেয়ে বেশি সময় দিয়েছেন তিনি মৌলভীবাজারের বিভিন্ন চেম্বারে রুগী দেখার মাধ্যমে।

বিএমএ এর সাধারণ সম্পাদক ডাঃ শাহজাহান কবির চৌধুরী জানান, ডাঃ দেলোয়ার হোসেন খুবই ভাল মনের এবং ভাল মানের একজন চিকিৎসক ছিলেন। তিনি বিএম এর সদস্য ছিলেন,তাঁর অকাল মৃত্যুতে গভীর শোক জানাচ্ছি।

ডাঃ দেলোয়ার হোসেন এর মৃত্যুতে শোকের ছায়া নেমে এসেছে জেলার চিকিৎসক অঙ্গনে। অনেকেই সোস্যাল মিডিয়য় মৃত্যুর বিষয়টি প্রচার করে শোক প্রকাশ করে এবং তার পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন।

এছাড়াও তার মৃত্যুতে মৌলভীবাজার সদর ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালের ভারপ্রাপ্ত তত্ত্বাবধায়ক ডাঃ বিনেন্দু ভৌমিক এই চিকিৎসকের মৃত্যুতে তাঁর শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

উল্লেখ্য, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তার মৃত্যুর সংবাদে হাজারো মানুষ শোক প্রকাশ করে তার অবদানের কথা অকপটে স্বীকার করে অনেকেই তার জন্য পরকালের শান্তি কামনা করেছেন।