মৌলভীবাজারে দুইদলের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া:আহত-২০

0
380

আলী হোসেন রাজন, মৌলভীবাজার প্রতিনিধিঃ মৌলভীবাজারে জেলা বিএনপির মিছিলে আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের হামলার অভিযোগ উঠেছে।
বিএনপির পূর্বনির্ধারিত এ কর্মসূচীতে আওয়ামীলীগ ধাওয়া দিয়ে জেলা বিএনপির সভাপতি এম নাসের রহমানসহ প্রায় ১৫ জন নেতাকর্মীকে আহত করেছে বলে জানিয়েছে বিএনপি।
অপরদিকে শনিবার (১১ মার্চ) দুপুরে বিএনপি-জামাতের দেশ বিরোধী ষড়যন্ত্র, সন্ত্রাস, নৈরাজ্য ও অপরাজনীতির বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়ে শহরের প্রধান প্রধান সড়কে মিছিল শেষে চৌমহনা চত্তরে শান্তি সমাবেশ করে জেলা আওয়ামী লীগ।

মৌলভীবাজার তিন আসনের সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি নেছার আহমদ এর সভাপত্বিতে এসময় উপস্থিত ছিলেন দলের সাধারন সম্পাদক মিছবাহুর রহমান, যুগ্ম সাধারন সম্পাদক মো: ফজলুর রহমান, মো: কামাল হোসেন, যুবলীগের সাধারন সম্পাদক সৈয়দ রেজাউর রহমান সুমনসহ ছাত্রলীগ, যুবলীগ ও আওয়ামীলীগের সহযোগী ও অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দরা।
এসময় সমাবেশ থেকে বিএনপির নাশকতা প্রতিরোধে আওয়ামী লীগ মাঠে থাকবে, তাদেরকে রাজপথে নামতে না দেয়ার হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দরা।

এর কিছুক্ষণ পরই জেলা বিএনপির পূর্বনির্ধারিত কেন্দ্রীয় কর্মসূচী অনুযায়ী শহরে মানববন্ধন বের করার প্রন্তুতি নিলে আওয়ামী ছাত্রলীগ, যুবলীগের কিছু নেতা-কর্মীরা তাদেরকে ধাওয়া দিলে ছত্রভঙ্গ হয় বিএনপি নেতাকর্মীরা।
এসময় দেশীয় অস্ত্রসহ ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে হামলা চালিয়ে ২টি গাড়ি ভাংচুর করা হয়। এক পর্যায়ে শুরু হয় উভয় পক্ষের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা-ধাওয়া। পরে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে।
বিএনপি’র দলীয় সূত্র দাবী করে বলেন, জেলা বিএনপির সভাপতি ও সাবেক সংসদ সদস্য এম নাসের রহমান, জেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক আকিদুর রহমান সুহান, জেলা জাসাসের সাধারণ সম্পাদক জসিম উদ্দিন, তাজুদ, আলামীন, রুমেলসহ জেলা বিএনপির প্রায় ১৫জন নেতা-কর্মী আহত হয়েছে।
এ ঘটনায় ছাত্রলীগের ৫জন আহত হয়েছেন বলে জানিয়েছে জেলা ছাত্রলীগ। আহতরা শহরের বেসরকারি বিভিন্ন ক্লিনিকে চিকিৎসা নিচ্ছেন।
জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ভিপি মিজানুর রহমান মিজান বলেন, জেলাব্যাপি আমরা খুবই শান্তিপূর্ণ কর্মসূচি পালন করে আসছি। আওয়ামীলীগ আমাদের ধাওয়া দেয় বিনা উস্কানিতে। আমরা শান্তিপূর্ণ কর্মসূচি পালন করতে চাইলেও সরকারি দল আমাদের বাধা দিচ্ছে। হঠাৎ করেই সরকারের মদতপুষ্টরা দেশীয় অস্ত্রনিয়ে আমাদের উপর হামলা চালায়। এতে ১৫ জন নেতাকর্মী আহত হয়েছে বলে এখন পর্যন্ত জানতে পেরেছি। আমাদের শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতে সরকারের সন্ত্রাসী হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি ।
অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিএসবি) মোহসিন জানান, দুই দলের পাল্টাপাল্টি সমাবেশে যাতে পরিস্থিতি উত্তপ্ত না হয় সেজন্য পুলিশ সতর্ক অবস্থানে রয়েছে।