মৌলভীবাজারে ৩টি আসনে আ’লীগ নেতাসহ ৭ জনের মনোনয়নপত্র বাতিল

0
173

আমার সিলেট রিপোর্ট: আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের মৌলভীবাজারের চারটি আসনে মোট ৩২ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছিলেন। যাচাই যাচাই শেষে চারটি আসনের ২৫ জন প্রার্থীর মনোনয়ন বৈধতা পেয়েছে। আওয়ামী লীগ নেতাসহ ৭ জনের প্রার্থীতা বাতিল হয়েছে। এর মধ্যে মৌলভীবাজার-২ আসনের কোন প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বাতিল হয়নি।

সোমবার ৪ ডিসেম্বর বিকেল সাড়ে ৫টায় জেলা প্রশাসনের সভাকক্ষে ২৫ জন বৈধ প্রার্থীর তালিকা ও বাতিলকৃত ৭ জনের নাম ঘোষনা করেন জেলা রিটানিং অফিসার ও জেলা প্রশাসক উর্মি বিনতে সালাম।

মৌলভীবাজার-১ আসনে ১ জন মৌলভীবাজার-৩ আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী যুক্তরাজ্য আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি ও জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সিনিয়র সদস্য আব্দুর রহিম শহীদ সিআইপি সহ ৫ জন, মৌলভীবাজার-৪ আসনে ১ জনের বাতিল করা হয়েছে।

মৌলভীবাজার-৩ আসনে মনোনয়নপত্র বাতিল হয়েছে ৫ জনের ও মৌলভীবাজার-৪ আসনে মনোনয়নপত্র বাতিল হয়েছে ১ জন প্রার্থীর।

মৌলভীবাজার-৩ (মৌলভীবাজার সদর ও রাজনগর) : আসনে ১১ জন প্রার্থীর মধ্যে ৬ জনের প্রার্থীতা বৈধ ঘোষণা করা হয়। জমাকৃত কাগজপত্র ও তথ্য প্রদানের ক্ষেত্রে ত্রুটি থাকার কারণে ৫ জন প্রার্থীর মনোনয়ন বাতিল করা হয়েছে।

এ আসনে মনোনয়ন বাতিল হওয়া প্রার্থীরা হলেন, স্বতন্ত্র প্রার্থী যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি এম এ রহিম শহীদ সিআইপি,বাংলাদেশ ইসলামি ঐক্যফ্রন্টের মো. আব্দুর রউফ, জাকের পার্টির মো. আব্দুল কাইয়ুম, বাংলাদেশ সাংস্কৃতিক মুক্তিজোটের ফাহাদ আলম এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী সাদিকুর রহমান।

এ আসনে মনোনয়ন বৈধ ঘোষিত প্রার্থীরা হলেন, আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের প্রার্থী মো: জিল্লুর রহমান, জাসদ নেতা আব্দুল মোসাব্বির, ওয়ার্কাস পার্টি তাপস কুমার ঘোষ, জাতীয় পার্টির দুই নেতা রুহুল আমিন, আলতাফুর রহমান এবং এনপিপির মো: আবু বকর।

মৌলভীবাজার-৪ (শ্রীমঙ্গল-কমলগঞ্জ) : আসনে ৬ জন প্রার্থী মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছিলেন এরমধ্যে জাকের পার্টির মুহিবুর রহমান আজাদ এর প্রার্থীতা বাতিল ঘোষণা করা হয়।

এই আসনে বৈধ প্রার্থীরা হলেন আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী উপাধ্যক্ষ ড. আব্দুস শহীদ, বাংলাদেশ ইসলামি ফ্রন্টের আব্দুল মুহিদ হাসানী,জাতীয় পার্টির মোঃ মস্তান মিয়া, ইসলামি ঐক্যজোটের মোঃ আনোয়ার হোসাইন আলিম,স্বতন্ত্র প্রার্থী মোঃ নজরুল ইসলাম।
মনোনয়ন বাতিল করা হলোও তা সুনির্দিষ্ট করে বিস্তারিত জানানো হয়নি।তবে প্রার্থীতা বাতিলের বিরুদ্ধে আপিল করা যাবে আগামী ৫ ডিসেম্বর থেকে ৯ ডিসেম্বর এর মধ্যে প্রার্থীরা এই ঘোষণার বিপরীতে আপিল করতে পারবেন। আপিলের রায় ১৫ ডিসেম্বরের মধ্যে জানা যাবে।

মৌলভীবাজার-১ (বড়লেখা-জুড়ী) : আসনে ৩ ডিসেম্বর রোববার ৫ জন প্রার্থীর মনোনয়ন যাচাই-বাছাই কাজ শেষ হয়। এরমধ্যে কাগজপত্রে ত্রুটির কারণে স্বতন্ত্র প্রার্থী ফারুক আহমদের মনোনয়ন বাতিল করা হয়।

এই আসনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী মো: শাহাবুদ্দিন, জাতীয় পার্টির আহমেদ রিয়াজ উদ্দিন ও তৃণমূল বিএনপির মো: আনোয়ার হোসেন ও স্বতন্ত্র প্রার্থী মো: ময়নুল ইসলামের প্রার্থীতা বৈধ বলে ঘোষণা করা হয়।

মৌলভীবাজার-২ (কুলাউড়া) : আসনে ১০ জন প্রার্থীর মধ্যে বিকল্প ধারার প্রার্থী মো: কামরুজ্জামান সিমুর এর মনোনয়ন স্থগিত করা হয়েছে। পরে কাগজপত্র সঠিক পাওয়া গেলে প্রার্থীতা বৈধ করা হয়।

এ আসনের অন্যান্য বৈধ প্রার্থীরা হলেন আওয়ামী লীগের শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল, স্বতন্ত্র প্রার্থী একেএম সফি আহমদ সলমান, মো. আব্দুল মতিন, তৃণমূল বিএনপি থেকে এম এম শাহীন, জাসদ থেকে এডভোকেট মো: বদরুল হোসেন ইকবাল, জাতীয় পার্টি থেকে এডভোকেট মাহবুবুল আলম ও আব্দুল মালিক,ইসলামী ঐক্যজোটের মাওলানা আছলাম হোসাইন রাহমানী,ইসলামী ঐক্যজোটের আব্দুল মোস্তাকিম তামিম এবং ইসলামি ফ্রন্টের এনামুল হক মাহতাব।