মৌলভীবাজার হোটেল শ্রমিকদের জেলা সম্মেলন সফল করার আহ্বান

    0
    230

    আমারসিলেট24ডটকম,২১জানুয়ারীঃ আগামী ৩০ জানুয়ারি’১৫ মৌলভীবাজার জেলা হোটেল শ্রমিক ইউনিয়ন রেজিঃ নং চট্টঃ২৩০৫ এর ৪র্থ সম্মেলনকে সামনে রেখে ২০ জানুয়ারি বিকেল ৫ টার সময় ইউনিয়নের উদ্যোগে চৌমুহনাস্থ কার্যালয়ে সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির একসভা অনুষ্টিত হয়। সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির আহবায়ক মোঃ মোস্তফা কামালের সভাপতিত্বে অনুষ্টিত সভায় অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ট্রেড ইউনিয়ন সংঘ মৌলভীবাজার জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক রজত বিশ্বাস ও সিলেট জেলা হোটেল শ্রমিক ইউনিয়নের সহ-সভাপতি মীর মোঃ জসিমউদ্দিন। সভায় বক্তব্য রাখেন হোটেল শ্রমিক ইউনিয়নের জেলা কমিটির সহ-সভাপতি আব্দুল আজিজ, হোটেল শ্রমিক ইউনিয়নের সদর উপজেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক বিল্লাল হোসেন সরকার, সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির যুগ্ম-আহবায়ক শাহিন মিয়া, অর্থ-উপকমিটির আহবায়ক তারেশ বিশ্বাস সুমন, সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির সদস্য তাজুল ইসলাম, চৌমুহনা আঞ্চলিক কমিটির আহবায় কবির মিয়া, সোহেল আহমেদ সুবেল, রিকশা শ্রমিক সংঘের সভাপতি সোহেল আহমেদ প্রমূখ।

    আগামী ৩০ জানুয়ারি বিকাল ৩ টার সময় মৌলভীবাজার শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে অনুষ্টিত সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বাংলাদেশ হোটেল রেস্টুরেন্ট সুইটমিট শ্রমিক ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন জাতীয় গণতান্ত্রিক ফ্রন্ট(এনডিএফ), সিলেট জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক জয়দীপ দাস চম্পু, সিলেট জেলা হোটেল শ্রমিক ইউনিয়ন রেজিঃ নং- চট্টঃ ১৯৩৩ এর সভাপতি আবুল কালাম আজাদ, বাংলাদেশ কৃষক সংগ্রাম সমিতি মৌলভীবাজার জেলা কমিটির সভাপতি কবি শহীদ সাগ্নিক, বাংলাদেশ ট্রেড ইউনিয়ন সংঘ মৌলভীবাজার জেলা শাখার সভাপতি মোঃ নুরুল মোহাইমীন। সম্মেলনকে সর্বাত্মকভাবে সফল করার জন্য সংগঠনের সর্বস্তরের নেতাকর্মীদের প্রতি আহ্বান জানান হয়।

    সভায় এক প্রস্তাবে সিলেটের চা ও রাবার শ্রমিকদের জনপ্রিয় নেতা জয় মাহাত্ম কুর্মী জামিনে মুক্তির পর পরই আবারও গ্রেফতার করার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান হয় এবং একই সাথে জয় মাহাত্ম কুর্মীর অবিলম্বে নিঃশর্ত মুক্তি দাবি করা হয়।

    সভায় বক্তারা বাজারদরের সাথে সংগতিপূর্ণ মূল মজুরি ৮ হাজার টাকা ঘোষণা, সরকার ঘোষিত নি¤œতম মজুরির গেজেট কার্যকর, শ্রমিকদের জন্য রেশনিং চালু, ৮ ঘন্টা কর্ম দিবস, নিয়োগ পত্র, পরিচয় পত্রসহ শ্রম আইন বাস্তবায়ন, শ্রীমঙ্গলে স্থায়ী শ্রম আদালত ও যুগ্ম-শ্রম পরিচালকের কার্যালয় স্থাপন করার দাবি জানান।