যশোরে কওমি মাদ্রাসার ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে মাদ্রাসা প্রধান আটক

0
44
যশোরে কওমি মাদ্রাসার ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে মাদ্রাসা প্রধান আটক

আমার সিলেট ডেস্ক: যশোরে কওমি মাদ্রাসায় ছাত্রী (১২) ধর্ষণের অভিযোগে দায়েরকৃত মামলায় মাদ্রাসার প্রধান শিক্ষককে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। মঙ্গলবার গভীর রাতে ঝালকাঠির লেবুবুনিয়া এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

দায়েরকৃত মামলায় মাদ্রাসার প্রধান শিক্ষককে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। মঙ্গলবার গভীর রাতে ঝালকাঠির লেবুবুনিয়া এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতার প্রধান শিক্ষক শাহাদাৎ হোসেন (৩৫) ঝালকাঠি জেলার রাজাপুর উপজেলার লেবুবুনিয়া গ্রামের আব্দুল মান্নান হাওলাদারের ছেলে ও যশোর সদরের পাওয়ার হাউজপাড়া এলাকার বাসিন্দা।

মামলার অভিযোগে জানা যায়, যশোরের আরবপুর এলাকার আরবপুর পাওয়ার হাউজপাড়া মহিলা মাদ্রাসার (কওমি) প্রধান শিক্ষক শাহাদাৎ হোসেন মাদ্রাসা ভবনের নিচতলায় বসবাস করেন। গত ৮ মার্চ তিনি এক ছাত্রীকে (১২) কৌশলে বাড়িতে ডেকে নিয়ে ধর্ষণ করেন। এ ঘটনা কাউকে জানালে হত্যার হুমকিও দেন।

পরবর্তীতে ওই ছাত্রী বিষয়টি তার মাকে জানালে তিনি মাদ্রাসার প্রধান শিক্ষক শাহাদাৎ হোসেনের বিরুদ্ধে ১১ মার্চ যশোর কোতোয়ালি মডেল থানায় ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন। ঘটনা জানাজানি হওয়ার পর থেকেই আসামি শাহাদাৎ হোসেন পালিয়ে যান।

র‌্যাব-৬ যশোর ক্যাম্পের কোম্পানি অধিনায়ক মেজর মোহাম্মদ সাকিব হোসেন জানান, ধর্ষণের বিষয়টি জানতে পেরে র‌্যাব-৬, যশোর ক্যাম্পের একটি দল ওই আসামিকে গ্রেফতারে গোয়েন্দা নজরদারি বৃদ্ধি করে। এরপর গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মঙ্গলবার গভীর রাতে ঝালকাঠি জেলার লেবুবুনিয়া এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃত আসামিকে যশোর কোতোয়ালি মডেল থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।