যুবকের গলার রগ ও হাতের কব্জি কর্তন

    0
    251

    আমারসিলেটটোয়েন্টিফোর.কম ০৫ সেপ্টেম্বর,শাব্বির এলাহী : কমলগঞ্জে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে মুমিন মিয়া নামক এক যুবকের গলার রগ ও হাতের কব্জি কর্তন করেছে এক সন্ত্রাসী। এ ঘটনায় পুলিশ অভিযুক্ত করিম মিয়াকে গ্রেফতার করেছে। গ্রেফতারকৃত করিম মিয়া ও তার বড় ভাই রহিম মিয়া প্রায় এক বছর পূর্বে  বাটাইল দিয়ে আঘাত করে আব্দুল বাছিত নামক এক যুবকে হত্যা করে।

    জানা যায়, উপজেলার রহিমপুর ইউনিয়নের রহিমপুর গ্রামের হারিস মিয়ার ছেলে করিম মিয়া (২০) এর সাথে সিদ্দেশ্বরপুর গ্রামের ছাদ বক্স এর ছেলে মুমিন মিয়া (২০) এর সাথে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে গত ২ সেপ্টেম্বর সোমবার কথাকাটাকাটি হয়।যার জের হিসাবে গত ৪ সেপ্টেম্বর বুধবার রাত ১টায় মুন্সীবাজার একটি মসজিদের পাশে অন্ধকারে মুমিন মিয়াকে ধারালো ব্লেড দিয়ে গলায় আঘাত করে রগ এবং হাতের কব্জি কেটে ফেলে পালিয়ে যায়।

    আহত মুমিন মিয়াকে মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে জরুরী বিভাগে ভর্তি করা হয়েছে। তার অবস্থা বর্তমানে আশংকা জনক।  এ ঘটনায় মুন্সীবাজারের ব্যবসায়ীরা সন্ত্রাসী করিম মিয়াকে আটক করে কমলগঞ্জ থানায় খবর দিলে পুলিশ এসে তাকে গ্রেফতার করে। গতকাল ৫ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার কমলগঞ্জ থানার ওসি নীহার রঞ্জন নাথ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, এ ঘটনায় আহতের ভাই আব্দুল মুকিত বাদী হয়ে থানায় একটি মামলা করেছেন এবং করিম মিয়াকে গ্রেফতার করা হয়েছে।