লতিফ সিদ্দিকীর বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির নির্দেশে

    0
    211

    আমারসিলেট24ডটকম,১৫অক্টোবরঃ মুসলিমদের ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হানার অপরাধে দায়ের করা এক মামলায় আদালতে হাজির না হওয়ায় সদ্য বরখাস্ত হওয়া ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী আবদুল লতিফ সিদ্দিকীর বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির নির্দেশে দিয়েছে আদালত। আজ বুধবার মহানগর হাকিম শাহরিয়ার মাহমুদ আদনান এ নির্দেশ দেন। এর আগে গত রবিবার মন্ত্রিত্ব ও দলীয় পদ হারান আবদুল লতিফ সিদ্দিকী। বিতর্কের মুখে তিনি পদত্যাগ না করায় সংবিধান অনুযায়ী মন্ত্রী হিসেবে তার ‘নিয়োগ অবসান’ ঘটানো হয়েছে। আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির বৈঠকের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, তাকে দলের নীতিনির্ধারণী সর্বোচ্চ ফোরাম প্রেসিডিয়াম থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়। একই সঙ্গে দলের প্রাথমিক সদস্যপদ সাময়িক স্থগিত করা হয়।

    জানা যায়, মহানবী (দঃ) ও পবিত্র হজ নিয়ে কটূক্তি ও অবমাননার অভিযোগে ২ অক্টোবর লতিফ সিদ্দিকীর বিরুদ্ধে নাজিম উদ্দিন নামে এক ব্যক্তি বাদী  হয়ে মামলা দায়ের করেন। আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে আজ বুধবার লতিফ সিদ্দিকীকে হাজির হওয়ার জন্য সমন জারি করেন। পরে লতিফ সিদ্দিকীকে পাওয়া যায়নি-এ মর্মে সমন জারি সংক্রান্ত প্রতিবেদন বুধবার আদালতে দাখিল করা হয়। একই সঙ্গে লতিফ সিদ্দিকী হাজির না হওয়ায় বাদীপক্ষের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির এ আদেশ দেন আদালত।

    প্রসঙ্গত গত ২৮ সেপ্টেম্বর নিউইয়র্কে টাঙ্গাইল সমিতির সঙ্গে মতবিনিময় সভায় লতিফ সিদ্দিকী মহানবী (দঃ) ও পবিত্র হজ নিয়ে কটূক্তি এবং প্রধানমন্ত্রীর পুত্র সজীব ওয়াজেদ জয় ও সাংবাদিকদের সম্পর্কে বিতর্কিত মন্তব্য করেন। এ নিয়ে দেশে-বিদেশে, এমনকি সরকারি দলেও প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়। এর আগেও বিভিন্ন সময় বিতর্কিত বিভিন্ন মন্তব্য করে সমালোচনার ঝড় তোলেন তিনি। মন্ত্রিসভার সদস্য, সরকারি দল আওয়ামী লীগের নেতাকর্মী এবং নিজ মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের মধ্যেও সমালোচিত ছিলেন লতিফ সিদ্দিকী।