শ্রীমঙ্গলে মাটিচাপায় ৪ নারীর মর্মান্তিক মৃত্যু !

0
250

শ্রীমঙ্গলের লাখাইছড়া চা বাগান এলাকায় টিলা থেকে মাটি সংগ্রহ করতে গিয়ে মাটিচাপা পরে ৪ নারীর মৃত্যু ও একজনের আহতের সংবাদ পাওয়া গেছে

জহিরুল ইসলাম, স্টাফ রিপোর্টারঃ

মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলের কালীঘাট ইউনিয়নের লাখাইছড়া চা-বাগানে পাহাড়ের সুড়ঙ্গ থেকে মাটি খুঁড়তে গিয়ে চাপা পড়ে ৪ চা শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে।এ সময় একজন আহত হয়েছেন।

শুক্রবার (১৯ আগস্ট) সকাল পৌনে ১১টায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত চারজন‌ই লাখাইছড়া চা-বাগানের চা শ্রমিক।

৪ জনের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কালীঘাট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান প্রানেশ গোয়ালা।

খবর পেয়ে হাসপাতালে ছুটে যান স্থানীয় সাংসদ উপাধক্ষ্য ড. আব্দুস শহীদ এমপি।

ঘটনাস্থলে পরিদর্শন করেছেন, শ্রীমঙ্গল উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তা আলী রাজীব মাহমুদ মিঠুন, শ্রীমঙ্গল উপজেলা পরিষদের উপজেলা চেয়ারম্যান ভানুলাল রায়, শ্রীমঙ্গল থানার অফিসার ইনচার্জ শামীম উর রশিদ তালুকদার কালীঘাট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান প্রানেশ গোয়ালা সহ প্রুমখ।

জরুরী বিভাগের কর্তব্যরত ডাক্তার ৪ জনকে মৃত ঘোষনা করেন।

শ্রীমঙ্গল ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের লিডার আবদুল কাদির বলেন, ঘর সংস্কারের জন্য মাটি সংগ্রহ করতে গিয়েছিল তারা ৪ জন । টিলা অনেক উঁচু হ‌ওয়ায় ও টিলার মাটি নরম থাকায় ধসে পড়ে। ঘটনাস্থলেই চার নারীর মৃত্যু হয়।

তিনি বলেন, আসন্ন দুর্গাপূজা উপলক্ষে ঘর লেপার জন্য মাটি আনতে গিয়েছিলেন ওই চার নারী। টিলা থেকে মাটি কেটে নেওয়ার সময় সেটি ধসে পড়ে। টিলার মাটি ধসে পড়লে ঘটনাস্থলেই তাদের মৃত্যু হয়।

খবর পেয়ে শ্রীমঙ্গল ফায়ার সার্ভিসের উদ্ধারকারী টিম গিয়ে উদ্ধার করে শ্রীমঙ্গল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসে।

শ্রীমঙ্গল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আলী রাজীব মাহমুদ মিঠুন বলেন, সকালে চা বাগানের কয়েকজন নারী শ্রমিক ঘর সংস্কারের জন্য টিলা থেকে মাটি সংগ্রহ করছিলেন। এ সময় টিলা ধসে মাটি চাপা পড়েন পাঁচজন। তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়ার পর চারজনকে মৃত ঘোষণা কেরন চিকিৎসকরা। সেখান থেকে এক শিশুকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে।

এ ঘটনায় নিহতরা হলেন, চা-শ্রমিক হীরামনি ভূমিজ (৩০), পূর্ণিমা ভূমিজ (২৮), রাধা মাহালি (৪০) ও শকুন্তলা ভূমিজ ৪০। মারা যাওয়া ৪ জনই নারীই চা শ্রমিক ছিলেন বলে নিশ্চিত করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা। একই পরিবারে দুজন তারা হলেন হীরামনি ভূমিজ,পূর্ণিমা ভূমিজ দুজনই একই পরিবারে বউ।

তিনি আরও জানান, জায়গাটি এখন ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় রয়েছে। চা বাগান মালিক কর্তৃপক্ষকে কাঁটাতারের বেড়া দিতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। আর টিলার উপর যেসব পরিবার রয়েছে তাদের সরিয়ে নিয়ে পুনর্বাসন করতে বলা হয়েছে।

শ্রীমঙ্গল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এর জরুরী বিভাগে ডাক্তার মেডিক্যাল অফিসার রেদওয়ান আহসান উল্ল্যাহ বলেন ,ফায়ার সার্ভিসের উদ্ধাকারী টিম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে ৪ জনই মৃত ছিলো।নিউজ আপডেট