শ্রীমঙ্গলে ৮৪ লক্ষ টাকার অধিক দেশী-বিদেশি জাল নোটসহ আটক যোগেন্দ্র মল্লিক

0
190

আমার সিলেট রিপোর্ট: :র‍্যাব-৯ এর অভিযানে মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গল থেকে বিপুল ঙ্কঢ়ঢ়ঢ়ঢ়ভভঢ়ঢ়বঢ়ভভভভবভঢ়ব ব ব ঢ় (র‍্যাব) এলিট ফোর্স হিসেবে আত্মপ্রকাশের সূচনালগ্ন থেকেই বিভিন্ন ধরনের নৃশংস ও ঘৃণ্যতম অপরাধ বিশেষ করে মাদক উদ্ধার, হত্যা মামলা, সন্ত্রাসী, চাঁদাবাজ, জঙ্গি দমন, অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার ও ছিনতাইকারীসহ বিভিন্ন অপরাধীদের গ্রেফতারে অগ্রণী ভূমিকা পালন করে আসছে।
সূত্রে জানা যায়,র‍্যাবের কাছে তথ্য ছিল যে, দীর্ঘদিন যাবত সংঘবদ্ধ কিছু চক্র অবৈধভাবে অল্প সময়ে অধিক মুনাফার লোভে দেশি-বিদেশি জাল নোট তৈরি ও প্রতারণামূলকভাবে বাজারজাত করে আসছে। এই চক্রের সদস্যরা জাল টাকা তৈরি করে আসল টাকার ভিতর জাল টাকা মিলিয়ে লেনদেন করে সহজ সরল মানুষকে নিঃস্ব করে দিচ্ছে। এরই ধারাবাহিকতায় জাল নোট প্রস্তুতকারী চক্রের একজন সদস্যকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব-৯, সিলেট।

গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‍্যাব-৯, সিপিসি-২, শ্রীমঙ্গল কোম্পানি জানতে পারে যে, জাল নোট প্রস্তুতকারী চক্রের একজন অসাধু ব্যক্তি মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গল থানা এলাকায় অবৈধভাবে জাল নোট লেনদেন করার উদ্দেশ্যে অবস্থান করছে। উক্ত সংবাদের প্রেক্ষিতে র‍্যাব-৯, সিপিসি-২, শ্রীমঙ্গল কোম্পানির একটি আভিযানিক দল গত ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ খ্রিঃ তারিখ সাড়ে চারটার দিকে মৌলভীবাজার জেলার শ্রীমঙ্গল থানাধীন রুস্তমপুর এলাকায় বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে ভারতীয় ১৪ লক্ষ ৬৫ হাজার ৫০০ রুপি মূল্যমানের জাল নোট এবং বাংলাদেশী ৬৯ লক্ষ ৫২ হাজার ৯০০ টাকা মূল্যমানের জাল নোটসহ সর্বমোট ৮৪ লক্ষ ১৮ হাজার ৪০০ রুপি/টাকা মূল্যমানের জাল নোটসহ যুগেন্দ্র মল্লিক (৪১) নামে জাল নোট প্রস্তুতকারী চক্রের একজন সদস্যকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারকৃত ব্যক্তি মৌলভীবাজার জেলার শ্রীমঙ্গল থানার রুস্তমপুর (সাতগাঁও) এলাকার বাসিন্দা।
প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায় যে, তিনি দীর্ঘদিন যাবত জাল টাকা তৈরি করে আসল টাকা বলে মানুষের নিকট বিক্রয় করে আসছিল। চক্রের অন্যান্য সদস্য এবং যে কোন পর্যায়ের জাল নোট প্রস্তুতের সাথে জড়িত ব্যক্তিদের গ্রেফতারে র‍্যাব-৯ এর চলমান গোয়েন্দা নজরদারি এবং অভিযান অব্যাহত থাকবে।

র‍্যা্যাব-৯’র প্রেস রিলিজ সূত্রে জানা যায়,আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের লক্ষ্যে গ্রেফতারকৃত আসামীর বিরুদ্ধে ১৯৭৪ সালের বিশেষ ক্ষমতা আইনের সংশ্লিষ্ট ধারায় মামলা দায়ের পূর্বক আসামী এবং জব্দকৃত জাল নোট ও অন্যান্য আলামত মৌলভীবাজার জেলার শ্রীমঙ্গল থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।