সংসদ সদস্য এ্যানীর বিরুদ্ধে ৫০ কোটি টাকার মানহানি মামলা

    0
    768

    বিএনপির ছাত্র বিষয়ক সম্পাদক ও সংসদ সদস্য শহিদ উদ্দীন চৌধুরী এ্যানীর বিরুদ্ধে ৫০ কোটি টাকার মানহানি মামলা করেছেন প্রবাসীকল্যাণমন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মোশাররফ হোসেন এমপি।

    রাজধানীর এক সমাবেশে সাংসদ এ্যানী প্রবাসীকল্যাণমন্ত্রীকে ‘৭১ সালের যুদ্ধাপরাধী’ হিসেবে আখ্যা দিয়ে তার গ্রেফতার ও বিচার দাবি করায় বৃহস্পতিবার ফরিদপুরের আদালতে এ মামলা করেন মন্ত্রী।

    মন্ত্রীর পক্ষে তার আইনজীবী অ্যাডভোকেট সুবল চন্দ্র সাহা জেলা যুগ্ম জজ ১নং আদালতের বিচারক রাফিজুল ইসলামের আদালতে মামলাটি দায়ের করেন। মামলা নম্বর: ১৪/২০১৩।

    ফরিদপুর জজ কোর্টের পিপি অ্যাডভোকেট খসরুজ্জামান দুলু জানান, তিনি নিজেও এই মামলার একজন আইনজীবী এবং জজ কোর্টের আরো কয়েকজন আইনজীবী মামলাটি পরিচালনায় সহায়তা করবেন।

    গত ১১ ফেব্রুয়ারি ঢাকা মহানগর দক্ষিণ ছাত্রদল আয়োজিত সমাবেশে শহিদ উদ্দীন চৌধুরী এ্যানী এমপি তার বক্তৃতায় প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেনকে ‘৭১ সালের যুদ্ধাপরাধী’ হিসেবে আখ্যা দিয়ে তার গ্রেফতার ও বিচার দাবি করেন।

    প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রীর পক্ষে তার আইনজীবী অ্যাডভোকেট সুবল সাহা এ ঘটনায় সাংসদ এ্যানীকে ১২ ফেব্রæয়ারি উকিল নোটিশ পাঠান। এতে উল্লেখ করেন, ‘‘এই মিথ্যা ও বানোয়াট বক্তব্য বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল বাংলাভিশনে প্রচার হওয়ায় মাননীয় মন্ত্রীসহ তার আত্মীয়-স্বজন, বন্ধু-বান্ধব, শুভানুধ্যায়ীসহ আপামর জনসাধারণ তথা সারা বিশ্বের মানুষের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছে। আর এই বানোয়াট ও উদ্দেশ্যপ্রণোদিত রাজনৈতিক বক্তব্যে মন্ত্রী মহোদয়ের মানহানি হয়েছে।’’

    সাংসদ এ্যানীকে তার বক্তব্যের স্বপক্ষে দালিলিক প্রমাণ দিতে সাত দিনের সময় দেওয়া হয়। অন্যথায় তার বিরুদ্ধে ৫০ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণের দাবিতে দেওয়ানি আদালতে মানহানি ও ফৌজদারি আদালতে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নিতে মামলা করা হবে বলে উকিল নোটিশে বলা হয়।

    সুপ্রীম কোর্টের আইনজীবী দিলরুবা শারমিনও প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রীর পক্ষে একই অভিযোগে উকিল নোটিশ পাঠান।