সক্ষম পুরুষদের ৪ স্ত্রী রাখার আহ্বান ছাত্রীদের

    1
    279

    আমার সিলেট  24 ডটকম,অক্টোবর ইসলামী বিধান মাথায় রেখেই চিরকুমারীত্ব রোধে সৌদি আরবের পুরুষদের ৪ স্ত্রী রাখার আহ্বান জানিয়েছে দেশটির একদল ছাত্রী। সৌদি মেয়েদের চিরকুমারী থাকার সমস্যা কমানোর লক্ষ্যে দেশটির দাহরান অঞ্চলের একদল কলেজ ছাত্রী এ আহ্বান জানান। এ ব্যাপারে সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে এরই মধ্যে তারা টুইটাইরে প্রচার অভিযান শুরু করেছে। তারা ইসলাম ধর্মের এ সংক্রান্ত বিধানের আলোকে এ ধরনের পদক্ষেপ নিতে ধনী ও শারীরিক দিক থেকে সক্ষম পুরুষদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে।আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমগুলো এই খবর জানিয়েছে।
    গণমাধ্যমে জানা যায়,  সৌদি আরবে মেয়েদের চিরকুমারী থাকার সমস্যা দিনকে দিন বাড়তেছে । দেশটিতে এ ধরণের নারীর সংখ্যা গত ২০১২ সালেই ১০ লাখে উন্নীত হয়েছে। এর পরিপ্রেক্ষিতে অনেকেই চিরকুমারীত্ব রোধে এই প্রচার অভিযানের প্রশংসা করলেও সৌদি আরবের বিবাহিত মহিলারা এর বিরোধিতা করেছেন। অন্যদিকে সৌদি পুরুষরা বলছেন, তারা এক স্ত্রীকে রেখেই দ্বিতীয় বিয়ে করতে ভয় পাচ্ছেন, কারন তাতে সংসারে অশান্তি দেখা দেয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। একজন সৌদি পুরুষ বলেছেন, কেউ যখন এ ব্যাপারে নিশ্চিত হতে পারবেন যে তিনি প্রথম ও দ্বিতীয় স্ত্রী উভয়ের সঙ্গেই ন্যায়বিচার পূর্ণ আচরণ করতে পারবেন কেবল তখনই তিনি এ ধরনের বিয়ের কথা ভাবতে পারেন।
    সামিয়া আল দানদাশি নামের এক সৌদি নারী এ উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে বলেছেন, প্রত্যেক ধনী ও শারীরিক দিক থেকে সক্ষম সৌদি পুরুষ যদি চার জন স্ত্রী রাখেন এবং তার প্রত্যেক স্ত্রী যদি গড়ে আট সন্তান জন্ম দেন তাহলে নারীদের চিরকুমারিত্ব সমস্যা সমাধানের পাশাপাশি এই দেশটির জনসংখ্যাও বেড়ে যাবে।
    উল্লেখ্য, অর্থনৈতিক সংকট ও বিয়ের জন্য পুরুষদেরকে বিপুল অর্থসম্পদ যৌতুক হিসেবে দেয়ার ব্যয়বহুল প্রথা সৌদি মেয়েদের অবিবাহিত থাকার সবচেয়ে দুটি বড় কারন। সৌদি আরবের অর্থনীতি ও পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের জরিপে দেখা গেছে, দেশটিতে ২০১১ সালে ৩০ বছর বয়সী অবিবাহিত নারীর সংখ্যা ছিল ১৫ লাখ ২৯ হাজার ৪১৮ জন।