সাংবাদিক অন্যায় করলে প্রেস কাউন্সিলের আইনে শাস্তি তিরষ্কারঃবিচারপতি নিজামুল হক

0
201

আলী হোসেন রাজন,মৌলভীবাজার প্রতিনিধিঃ বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিলের চেয়ারম্যান,সাবেক বিচারপতি মো: নিজামুল হক নাসিম বলেছেন সাংবাদিকদের প্রতি দায়বদ্ধতা থেকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান প্রেস কাউন্সিল আইন ১৯৭৪ প্রণয়ন করেছিলেন। সাংবাদিকদের নিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনারও সূদুরপ্রসারী চিন্তাভাবনা রয়েছে, তাঁর নির্দেশেই সাংবাদিকদের ডাটাবেজ প্রস্তুতি করা হচ্ছে এবং নতুন নীতিমালাও তৈরি হচ্ছে। অচিরেই প্রেস কাউন্সিল আরও শক্তিশালী হবে।
মঙ্গলবার (১৬ মে-২০২৩) মৌলভীবাজারের সার্কিট হাউজের মুন হলে বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিলের আয়োজনে এবং জেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় সাংবাদিকদের সাথে “প্রেস কাউন্সিল আইন ১৯৭৪ ও আচরণবিধি এবং তথ্য অধিকার আইন অবহিতকরণ” শীর্ষক সেমিনার ও মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তেব্যে তিনি একথা বলেন।

তিনি বলেন, প্রেস কাউন্সিলের সীমাবদ্ধতা রয়েছে। সাংবাদিক অন্যায় করলে প্রেস কাউন্সিল কিছু করতে পারেনা, কোন সাংবাদিক ভুল বা অন্যায় করলে বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিলের বিদ্যমান আইনে তার সর্বোচ্চ শাস্তি হলো তিরষ্কার করা। তাই অনেকেই প্রেস কাউন্সিলে না গিয়ে আদালতের দারস্থ হন। সেখানে সাংবাদিকের বিরুদ্ধে শাস্তি, জেল-জরিমানা সবই হচ্ছে অথচ একই বিষয়ে প্রেস কাউন্সিল বিচার করলে সেখানে শাস্তি হলো তিরষ্কার। আমরা চাই বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিলের ক্ষমতা আরও বাড়ুক, এর আইনের সংশোধন এনে জরিমানার বিধান চালু করা প্রয়োজন।

প্রেস কাউন্সিলে অপরাধ প্রমাণীত হলে সর্বোচ্চ ৫ লাখ টাকা জরিমানার বিধান রেখে এর আইন সংশোধনের প্রস্তাব করা হয়েছে, বর্তমানে আইনটি সংশোধনের কাজ প্রায় শেষ পর্যায়ে। এটি বাস্তবায়িত হলে প্রেস কাউন্সিলের শক্তি বাড়বে, হলুদ সাংবাদিকতা বাদ দিয়ে আসল সাংবাদিকতায় ফিরে আসবে। সাংবাদিকদের অবশ্যই বস্তুনিষ্ট ও সত্য সংবাদ প্রকাশ করতে হবে। মৌলভীবাজারের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক প্রভাংশু সোম মহান এর সভাপতিত্বে ও প্রেস কাউন্সিল সুপারেন্টেন্ট মো: সাখাওয়াত হোসেনের সঞ্চালনায় সেমিনারে প্রেস কাউন্সিল আইন ১৯৭৪ এর আচরণবিধির বিভিন্ন বিষয় তুলে ধরে বক্তব্য রাখেন তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের উপসচিব মো: মাসুদ খাঁন।
বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুদর্শন কুমার রায়। সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন জেলা তথ্য কর্মকর্তা মো: আনোয়ার হোসেন।
সেমিনারে মৌলভীবাজার জেলায় কর্মরত প্রিন্ট,ইলেকট্রনিক ও অনলাইন গণমাধ্যমের সাংবাদিকরা অংশগ্রহণ করে সাংবাদিকতার নানা প্রতিবন্ধকতার কথা তুলে ধরেন বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিলের কাছে।