সাভারে রানা প্লাজা ধসে বহু প্রাণহানির প্রতিবাদে আগামী ২৮ এপ্রিল সব গার্মেন্টস কারখানায় ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে পোষাক শ্রমিকদের ৮টি সংগঠন

    0
    412

    ঢাকা, ২৬ এপ্রিল : সাভারে রানা প্লাজা ধসে বহু প্রাণহানির প্রতিবাদে আগামী ২৮ এপ্রিল রবিবার দেশের সব গার্মেন্টস কারখানায় ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে পোষাক শ্রমিকদের সংশ্লিষ্ট আটটি সংগঠন। আজ শুক্রবার দুপুরে রাজধানীর পল্টনে গার্মেন্ট শ্রমিক সংগঠনগুলোর যৌথ সংবাদ সম্মেলনে এ শ্রমিক ধর্মঘটের ডাক দেয়া হয়েছে। পুরানা পল্টনের মুক্তিভবনে আয়োজিত এ সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন শ্রমিক নেতা মন্টু ঘোষ, মোশরেফা মিশু, রুহুল আমীন, সাদেকুর রহমান শামীম প্রমুখ। সাভারে ধসে পড়া ভবন ও গার্মেন্ট মালিকদের গ্রেপ্তার ও শাস্তি, নিহত শ্রমিকদের সারা জীবনের আয়ে সমপরিমাণ অর্থ তাদের পরিবারকে সহায়তা দেয়াসহ বিভিন্ন দাবিতে এ ধর্মঘটে ডাক দেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন শ্রমিক নেতারা।
    এদিকে আজ শুক্রবার পূর্ব পরিকল্পিতভাবে সাভারের রানা প্লাজায় শত শত শ্রমিক হত্যার প্রতিবাদে জাতীয় প্রেস ক্লাব ও পল্টন এলাকায় বিক্ষোভ করেছে একাধিক শ্রমিক সংগঠন। সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত এসব এলাকায় মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিলে রানা প্লাজার মালিক সোহেল রানার গ্রেপ্তার ও ফাঁসির দাবি করেন শ্রমিক নেতারা। একই সময় জাতীয় প্রেস ক্লাবে মানববন্ধন করে কামরুল হাসানের নেতৃত্বাধীন একতা গার্মেন্টস শ্রমিক ফেডারেশন।
    জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে শুক্রবার সকালে মানববন্ধন করে গার্মেন্টস শ্রমিক ঐক্য ফোরাম। গণতান্ত্রিক বামমোর্চার সমন্বয়কারী ও ঐক্য ফোরামের আহ্বায়ক মোশরেফা মিশু মানববন্ধনে বলেন, সাভারে দুর্ঘটনা নিছক দুর্ঘটনা নয়। এটা পরিকল্পিত হক্যাকাণ্ড। এ ঘটনার দায়ীদের অবিলম্বে গ্রেফতার করতে হবে।

    পল্টন এলাকায় মিছিল করেছে বাংলাদেশ গার্মেন্টস শ্রমিক ঐক্য পরিষদ। মিছিলের পূর্বে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে বক্তব্য দেন শ্রমিক নেতা এম. দেলোয়ার হোসেন, আমিরুল ইসলাম প্রমুখ। সমাবেশে বক্তারা বলেন, যে শ্রমিকের ঘাম আর শ্রমে দেশের অর্থনীতি সচল  সেই শ্রমিকেরা আজ নির্মমভাবে খুন হচ্ছে। আর আমরা তার বিচার পাচ্ছি না। তারা বলেন, এবার আর আমাদের ঘরে ফেরার সুযোগ নেই। রানা প্লাজার মালিকের ফাঁসির দাবি পূরণ না হওয়া পর্যন্ত আমরা রাজপথ ছাড়বো না।