সুনামগঞ্জে মাছ ধরা নিয়ে গুলাগুলি:নিহত-১,আহত-২০,আটক-২

    0
    224

    আমারসিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,২৮ফেব্রুয়ারী,মোজাম্মেল আলম ভূঁইয়াঃ সুনামগঞ্জ জেলার শাল্লায় বিলে মাছ ধরা কেন্দ্র করে পুলিশ ও জেলেদের মধ্যে গুলাগুলি ও সংঘর্ষ হয়েছে। সংঘর্ষে সময় বাড়িঘরে অগ্নিসংযোগ করেছে জেলেরা। এঘটনায় পুলিশের হাতে গুলিবৃদ্ধ হয়ে মনসুর আলী(৩৬)নামের এক জেলে মৃত্যু হয়েছে। আহত হয়েছে থানার এসআই জিন্নাহ,এএস আই আব্দুছ ছামির,কনস্টেবল আলী হোসেন,সমিরণ ও ইসলাম হোসেনসহ গুলিবৃদ্ধ হয়েছে আরো ২০জন। আহতদেরকে বিভিন্ন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। নিহত মোঃ মনসুর আলী আজমিরীগঞ্জ উপজেলার শিবপাশা গ্রামের আঞ্জু মিয়ার ছেলে।

    এঘটনায় ঘটনাস্থল থেকে ২ জেলেকে আটক করেছে পুলিশ। ঘটনাটি ঘটেছে গতকাল শনিবার সকাল সাড়ে ১০টায় থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত। পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়,হবিগঞ্জ জেলার আজমিরিগঞ্জ,নবীগঞ্জ ও বানিয়াচং উপজেলার জেলেরা বন্দুক,রামদা ও দেশীয় অস্ত্র-সস্ত্র নিয়ে সংঘবদ্ধ হয়ে সুনামগঞ্জ জেলের শাল্লা উপজেলার ঘাগটিয়া বিলে অবৈধভাবে মাছ ধরতে নামে। এসময় পুলিশ গিয়ে বাঁধা দিলে জেলেদের সাথে শুরু হয় ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া,গুলি বিনিময় ও সংঘর্ষ।

    সংঘর্ষ চলাকালে জেলেরা কয়েকটি বসতবাড়িতে অগ্নিসংযোগ করে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ ১০রাউন্ড রাবার বুলেট নিক্ষেপ করে। প্রায় ২ঘন্টাব্যাপী দুইপক্ষের মধ্যে গুলাগুলি ও সংঘর্ষের ঘটনায় গুলিবৃদ্ধ হয়ে এক জেলের মৃত্যু হয়। পুলিশ নিহতের লাশ উদ্ধার করলে তার নাম পরিচয় পাওয়া যায়নি। আর আহতদেরকে শাল্লা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সেসহ বিভিন্ন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

    শাল্লা থানার ওসি আনিসুর রহমান এঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান,জেলেরা অস্ত্র সস্ত্র নিয়ে সংর্ঘবদ্ধ হয়ে অবৈধভাবে বিলে মাছ ধরার খবর পেয়ে ম্যাজিস্ট্রেটসহ আমরা ঘটনাস্থলে গেলে জেলেরা পুলিশের উপর হামলা করে গুলি চালায়। পরে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে গিয়ে পুলিশও জেলেদেরকে গুলি করে।

    সুনামগঞ্জ জেলা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সাইফুল ইসলাম জানান,বর্তমানে এলাকার পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে।আপডেট