হবিগঞ্জে একদিনে দুই নারীসহ তিন জনের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ

0
120
হবিগঞ্জে একদিনে দুই নারীসহ তিন জনের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ

নূরুজ্জামান ফারুকী,বিশেষ প্রতিনিধি: হবিগঞ্জের বানিয়াচংয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে হাওরে নিখোঁজ নৌকার মাঝি চান মিয়া (৩২)-সহ একদিনে ৩ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। লাশ উদ্ধারের পর সেগুলো ময়নাতদন্তের জন্য হবিগঞ্জ জেলা সদর আধুনিক হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করেছে পুলিশ।

শনিবার (৬ জুলাই) সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত পৃথক স্থান থেকে লাশ গুলো উদ্ধার করা হয়। উদ্ধার হওয়া লাশের মধ্যে একজন নৌকার মাঝি ছাড়াও দুইজন নারী রয়েছেন।

জানা যায়, শুক্রবার সকালে বানিয়াচংয়ের হাওরে নৌকা দিয়ে ঘুরতে যায় একদল ভ্রমন পিপাসু যুবক। ঘোরাঘুরির এক পর্যায়ে নৌকাটি কাগাপাশা ইউনিয়নের হালিমপুর হাওরে পৌঁছালে অসাবধানতাবশত নৌকার মাঝি বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে পানিতে পড়ে গিয়ে নিখোঁজ হয়। পরে অনেক খোঁজাখুঁজি করেও তার সন্ধান পাওয়া যায়নি।

শনিবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে হবিগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের একটি ডুবুরি দল স্থানীয়দের সহযোগিতায় ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে। চান মিয়া বানিয়াচং উপজেলার ৬নং কাগাপাশা ইউনিয়নের বাথাকান্দী গ্রামের মৃত সামছু মিয়ার ছেলে বল জানা যায়।

অপরদিকে, বানিয়াচং উপজেলা সদরের ১নং উত্তর পশ্চিম ইনিয়নের কামালখানী মহল্লায় বাড়ির পাশে একটি জলাশয়ে রুমা আক্তার (১৮) নামে এক যুবতির লাশ পড়ে থাকতে দেখেন স্থানীয়রা। পরে পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়।

এছাড়াও উপজেলার দৌলতপুর ইউনিয়নের আড়িয়ামুগুড় এলাকা থেকে সিপ্রা রাণী দাস (২৩) নামে এক নারীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয়।

এ বিষয়ে বানিয়াচং থানার (ওসি) মোহাম্মদ দেলোয়ার হোসেন জানান, তিনজনের মধ্যে চান মিয়া নৌকার মাঝি ছিল। সে শুক্রবার থেকে নিখোঁজ ছিল। স্থানীয়দের সহযোগিতায় ডুবুরি দল তার লাশ হাওরের পানির নিচ থেকে উদ্ধার করা হয়। এছাড়াও রুমা আক্তার নামক একজন মৃগী রোগী ও সিপ্রা রাণী মানসিকভাবে অসুস্থ ছিলেন বলে জানতে পেরেছি। বিষয়গুলো পুলিশ খতিয়ে দেখছে।