হাজার বাংলাদেশীর অশ্রজলে বিদায় নিলেন শহীদুল আলম মানিক

    0
    257

    আমারসিলেট24ডটকম,২৩নভেম্বর,আবু তাহির,ফ্রান্সঃ ফ্রান্স বাংলাদেশ কমিউনিটির অন্যতম  নেতা  একুশে উদযাপন প্যারিসের আহবায়ক,প্যারিস ওভারবিলা মসজিদ কমিটির অন্যতম প্রতিষ্টাতা সদস্য,বাংলাদেশ ইয়ুথ ক্লাব ফ্রান্সের অন্যতম উপদেষ্টা,আয়েবার সহ সাধারন সম্পাদক বিশিষ্ট সমাজ সেবক,রাজনীতিবিদ,শহীদুল আলম মানিক আর নেই (ইন্না….. রাজিউন)। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৫৪ বছর। তিনি স্ত্রী, ২ ছেলে ও অসংখ্য আত্মীয়-স্বজন,বন্ধু বান্দব রেখে গেছেন।গত ১২ নভেম্বর হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে দীর্ঘ ৮ দিন মৃত্যুর সাথে পান্জা লড়ে আবশেষে গত ২০ নভেম্বর সন্ধে ৭ টায় প্যারিস জর্জ পাম্পিদো হাসপাতালে ইন্তেকাল করেছেন।গত ২২ নভেম্বর শুক্রবার প্যারিসের ওভারবিলা  মসজিদে  নামাজে জানাজার পর বাংলাদেশে তার মরদেহ পাঠানো হয়েছে।বাংলাদেশে তার গ্রামের বাড়ি ফেনীতে  তাঁকে চিরনিন্দ্রায় শায়িত করা হবে।

    নামাজে জানাজায় উপস্তিত ছিলেন ফ্রান্স বাংলাদেশ রাষ্ট্রদুত এম শহীদুল ইসলাম,লন্ডন থেকে শোকবার্তা পাঠান ফ্রান্সে বাংলাদেশের সাবেক রাষ্ট্রদুত টনি হক।নামাজে জানাজার পূর্বে মরহুমের কর্মময় জীবনের ওপর সংক্ষিপ্ত আলোচনা করেন ফ্রান্স বাংলাদেশ বিজনেস ফোরামের সভাপতি কাজী এনায়েত উল্লাহ,সাম্বা ভাই,সালেহ আহমদ চৌধুরী,এবং মরহুমের বড় ছেলে আকসিন,প্রমুখ।উপস্তিত ছিলেন কমিউনিটির সর্বস্হরের গন্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ।তাঁরা শহীদুল আলম মানিকের মৃত্যুতে ফ্রান্সবাসী একজন সৎ,সদালাপী ও প্রকৃত সমাজ সেবক কে হারালো বলে অভিমত ব্যক্ত করেন।পরিবারের পক্ষ থেকে মরহুমের বড় ছেলে আকসীন তাঁর বাবার জন্য কমিউনিটির সবার নিকট দোয়া কামনা করেছেন।

    এদিকে শহীদুল আলম মানিকের অকাল মৃত্যুতে গভীর শোক ও তার পরিবারের প্রতি সমবেদনা প্রকাশ করেছেন ফ্রান্সস্ত বাংলাদেশ দুতাবাসের রাষ্ট্রদুত শহীদুল ইসলাম,ফ্রান্স বাংলাদেশ বিজনেস ফোরামের সভাপতি কাজী এনায়েত উল্লাহ,আমি ভয়াজের চেয়ারম্যান এস হায়দার হোসেইন,ইয়ুথ ক্লাবের উপদেষ্টা সোনাম উদ্দীন খালিক,বাংলাদেশ এসোসিয়েশন তুলুজের সভাপতি ফখরুল আকম সেলিম,ফ্রান্সের বাংলা সংবাদ মাধ্যমের কর্মীবৃন্দ,তুলুজ বাংলাদেশ এসোসিয়েশন,সিলেট বিভাগ সমাজ কল্যান সমিতি,বাংলাদেশ ব্যাবসায়ী সমিতি,ফেনী সমিতি,বাংলাদেশ ইয়ুথ ক্লাব ফ্রান্স,নোয়াখালি সমিতি,চাদপুর সমিতি,ময়মনসিংহ পরিষদ,নবকন্ঠ,প্যারিস থেকে,ইউরোবিডিনিউজ২৪,সহ বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতীক সংগঠন।

    মরহুমের জানাজায় প্যারিসের বাংলাদেশীদের উপস্তিতি একসময় জনসমুদ্রে পরিনিত হয়,মরহুমকে এক পলক শেষবারের মত দেখতে ক্রন্দনরত বাংলাদেশীদের উপস্তিতি মসজিদ প্রাংগন ছাড়িয়ে যায়।তখন এক গভীর শোকের আবহ সৃষ্টি হয়।উপস্তিত জনতার মুখে একটাই বক্তব্য ছিল অতি অল্প বয়সে এরকম একজন কমিউনিটি নেতা হারানোর শোক কমিউনিটি কাঠিয়ে উঠতে অনেক সময় লাগবে,এ ক্ষতি পুরনের নয়।শেষ বারের মত দেখতে পার্শবর্তী দেশ বেলজিয়াম,ইংল্যান্ড,ইতালী,জার্মান,ফ্রান্সের তুলুজ থেকে বাংলাদেশী কমিউনিটির নেতৃবৃন্দ এবং তার দীর্ঘদিনের সহযোদ্ধারা উপস্তিত হন।