হিজরী নববর্ষকে স্বাগত জানিয়ে হবিগঞ্জে বর্ণাঢ্য মিছিল

    0
    268

    পাশ্চাত্যের নগ্ন সংস্কৃতি পরিহার করে সর্বক্ষেত্রে ইসলামী সংস্কৃতি চালু করতে হবে

    আমারসিলেট24ডটকম,২৫অক্টোবরঃ  মুসলমানদের ঐতিহ্য ও আভিজাত্যের অন্যতম প্রতীক হিজরী সন, সেই হিজরী নববর্ষ বরণ উদযাপন উপলক্ষ্যে একটি আধুনিক মান সম্মত সমন্বিত ইসলামী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হবিগঞ্জ ক্যাডেট মাদ্রাসার উদ্যোগে গতকাল ২৫/১০/২০১৪ইং শনিবার সকাল ১০.০০ ঘটিকায় মাদ্রাসা ক্যাম্পাসে “হিজরত ও হিজরী সন” শীর্ষক আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। আলহাজ্ব মাওলানা অধ্যক্ষ এস,এম ছোলাইমান খান রাব্বানীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভা পরিচালনা করেন মোঃ রবিউল আমিন ও এ,জে কুদরতী।

    এতে সম্মানিত অতিথি ছিলেন দৈনিক দেশজমিন সম্পাদক ও বিটিভি জেলা প্রতিনিধি মোঃ আলমগীর খাঁন, মাওলানা শাহ হালিম উদ্দিন নুরী, সৈয়দ লিয়াকত আব্বাছ টিটু, ইফতেখার আহমেদ হাবলুল, ডাঃ এস,এম সরওয়ার, ফয়জানে মদিনা হাফিজিয়া মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক হাফিজ আমিনুল হক, মাওলানা মোশাহিদ আলী, হাফিজ বায়েজিদ হুসাইন খান, হাফিজ মাওলানা জানে আলম, হাফিজ শাহ আলম, উপস্থিত ছিলেন অন্যান্যদের মধ্যে মাওলানা মুজিবুর রহমান, হাফিজ মাওলানা আব্দুস সহিদ, মাওলানা আবু ইউসুফ, গোলাম কিবরিয়া সুমন, মোঃ রেজাউল হক, তানজিল আক্তার, তাইবুর রহমান, সাবানা বেগম, গোলাম আম্বিয়া সুমন, মরিয়ম বেগম প্রমুখ।

    স্বাগত মিছিল পূর্ব সভায় বক্তারা বলেন, হিজরী সন মুসলমানদের স্বতন্ত্র সন গণনা রীতি, যা ইসলামের ঐতিহ্য ও আভিজাত্যের অন্যতম প্রতীক হিসাবে বিবেচিত। ইসলাম যে পূর্ণাঙ্গ জীবন বিধান, মুসলমানদের নিজস্ব ভান্ডার যে কত সমৃদ্ধ হিজরী সন তা আবারো প্রমাণ করে। তারা বলেন, হিজরী সন প্রবর্তিত না হলে মুসলিম জাতি অন্য সম্প্রদায়ের কাছে অন্তত এজন্যে ঋণী থাকতে হতো। তাই মুসলমানদের আভিজাত্যকে রক্ষা করে নিজস্ব সংস্কৃতিকে সমৃদ্ধ করার এই প্রয়াসে হিজরতের পরে সতের বছরের মাথায় দ্বিতীয় খলিফা হযরত ওমর ফারুক (রাঃ) এর শ্বাসনামলে গৃহীত হয়েছিল।

    যার ফলে সারা দুনিয়ায় মুসলমানরা স্বগৌরবে উজ্জীবিত। সভাপতির বক্তব্যে মাদ্রাসা অধ্যক্ষ মাওলানা রাব্বানী বলেন, মুসলিম জাতি মূলতঃ মাথা উচু করে থাকার জাতি। তারা কোন সময়ে কোন জাতি, ধর্ম ও বর্ণের নিকট মাথা করেনি। অথচ আজ আমরা আমাদের প্রকৃত অবস্থান ঈমান ইসলাম থেকে দূরে থাকার কারণেই আমরা লাঞ্চিত, বঞ্চিত ও স্থানে স্থানে অপমানিত হতে হচ্ছে। মুসলিম জাতি আপন আপন তাহযিব তমদ্দুন, সংস্কৃতি বাদ দিয়ে আমদানি করা পশ্চাত্যের নগ্ন সংস্কৃতিতে হাবুডুবু খাচ্ছে। এই মুহুর্তে দেশ জাতিকে মুক্তি দিতে হলে আমদানী করা পাশ্চাত্যের নগ্ন সংস্কৃতি পরিহার করে সর্বক্ষেত্রে ইসলামী মুল্যবোধ তথা সংস্কৃতি চালু করতে হবে।
    সভার শেষে বিভিন্ন রং বেরঙ্গের ব্যানার, ফেস্টুন সহ বিভিন্ন ইসলামী শ্লোগানে মুখরিত করে ১৪৩৬ হিজরী নববর্ষকে স্বাগত জানিয়ে বর্ণাঢ্য স্বাগত মিছিল জেলা শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে মুক্তিযোদ্ধা চত্বর (থানার সামনে) হয়ে ঐতিহ্যবাহী কোর্ট মসজিদে মিলাদ শরীফ ও আরবী নতুন বছরের সর্বাঙ্গীন শান্তি, মঙ্গল ও সমৃদ্ধি কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করা হয়।