হিজাব পরতে তুর্কি নারীদের এখন আর বাধা নেই

    0
    263

    আমারসিলেট 24ডটকম,০৯অক্টোবর : নারীদের হিজাব ব্যবহারের ওপর কয়েক দশক আগে জারি করা নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করেছে  মুসলিম রাষ্ট্র তুরস্ক। নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়ায় এখন আর হিজাব (স্কার্ফ) পরে বিভিন্ন সামাজিক কাজে অংশ নিতে তুর্কি নারীদের সামনে আর কোনো বাধা রইলনা। এরইমধ্যে তুর্কি সরকার নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের ব্যাপারে একটি গেজেট প্রকাশ করেছে। তবে বিচার বিভাগ, সেনাবাহিনী ও পুলিশ বিভাগের জন্য এ আইন কার্যকর হবে না বলে জানিয়েছে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমগুলো।
    গণমাধ্যমগুলো জানায়, তুরস্কের প্রধানমন্ত্রী রজব তাইয়্যেব এরদোগান তার সরকারের এ পদক্ষেপকে দেশে গণতান্ত্রিক সংস্কারের অংশ বলে উল্লেখ করেছেন।এ উদ্যোগের মাধ্যমে সমাজে স্বাভাবিক অবস্থা ফিরে আসবে বলে তার ধারনা । হিজাব নিষিদ্ধের আইনকে তিনি সেকেলে উল্লেখ করে আরো বলেছেন, এ আইন ছিল তুর্কি রাষ্ট্র কাঠামোর সঙ্গে অসঙ্গতিপূর্ণ। এ সম্পর্কে সংসদে দেয়া এক বক্তৃতায় এরদোগান বলেছেন “হিজাব পরা নারী যেমন তুরস্কের পূর্ণাঙ্গ সদস্য তেমনি যিনি পরবেন না তিনিও তুরস্কের পূর্ণ নাগরিক”। এদিকে তুরস্কের বিরোধী ধর্মনিরপেক্ষতাবাদী দল সরকারের এ পদক্ষেপকে সেক্যুলার তুর্কি রাষ্ট্রের জন্য মারাত্মক ধরনের বিপর্যয় বলে উল্লেখ করেছে।
    প্রসঙ্গত, এরদোগানের নেতৃত্বাধীন জাস্টিস অ্যান্ড ডেভলপমেন্ট পার্টি ২০০২ সালে যখন ক্ষমতায় আসে তখন দলটি বলেছিল, হিজাব পরার ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা তুলে দেয়া হবে। কারন দেশটিতে হিজাব নিষিদ্ধ থাকায় অনেক ধর্মপ্রাণ নারী বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষায় অংশগ্রহন করতে পারছিলেন না