হুমকি কাজে আসেনি সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পেরঃঅবশেষে গ্রেপ্তার

0
175

আমার সিলেট ডেস্কঃ হুমকি দেওয়ার পরেও অবশেষে সব জল্পনা কল্পনার অবসান ঘটিয়ে গ্রেপ্তার করা হলো যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে। স্থানীয় সময় মঙ্গলবার (৪ এপ্রিল-২০২৩) দুপুরে নিউ ইয়র্কের ম্যানহাটনের ডিএ কার্যালয়ে তিনি আত্মসমর্পণ করেন ট্রাম্প। খবর বিবিসির।

সাবেক পর্ন তারকা ড্যানিয়েল স্টর্মির মুখ বন্ধ রাখতে ঘুষ দেয়ার মামলায় ডিস্ট্রিক্ট অ্যাটর্নির (ডিএ) কার্যালয়ে আত্মসমর্পণ করেন তিনি। আত্মসমর্পণের পর তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে এই প্রথম কোনো প্রেসিডেন্ট ফৌজদারি অপরাধে অভিযুক্ত হয়ে গ্রেপ্তার হলেন। দেশটির রাজনৈতিক ইতিহাসে আজকের দিনটিকে অত্যন্ত গুরুত্বের সঙ্গে দেখা হচ্ছে।

রিপাবলিকানরা আশা করছেন, যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক এই প্রেসিডেন্ট আজ জামিনে মুক্তি পাবেন। পরে সন্ধ্যায় তিনি ফ্লোরিডা অঙ্গরাজ্যে ফিরে যাবেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

গত বৃহস্পতিবার নিউইয়র্কের গ্র্যান্ড জুরি ট্রাম্পকে অভিযুক্ত করেন। ২০১৬ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আগে এক পর্নো তারকার মুখ বন্ধ রাখতে ঘুষ দেয়ার অভিযোগ রয়েছে ট্র্রাম্পের বিরুদ্ধে।

তার দল রিপাবলিকান পার্টি মনে করে, মামলাটি রাজনৈতিক প্রভাবিত এবং ডেমোক্র্যাটরা এর পেছনে কলকাঠি নাড়ছেন।

এর আগে আজ সকালে ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্রের জন্য দুঃখজনক এক দিন আজ।

এতে যুক্তরাষ্ট্রকে রক্ষায় জনগণকে নিজ নিজ দায়িত্ব পালনের আহ্বান জানান সাবেক এই প্রেসিডেন্ট।

তার এক ই-মেইল বার্তার বিষয় ছিল, গ্রেপ্তার হওয়ার আগে শেষ ই-মেইল।

পর্নো তারকা স্টরমি ড্যানিয়েলসকে ঘুষ দেওয়ার মামলায় আদালতে আত্মসমর্পণ করার জন্য ফ্লোরিডা থেকে নিউইয়র্কে পৌঁছান ট্রাম্প। ট্রাম্পের উপস্থিতি ঘিরে শুধু ম্যানহাটান নয়, পুরো নিউইয়র্কের নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে।

ট্রাম্প টাওয়ারসহ ম্যানহাটানের ফিফথ অ্যাভিনিউজুড়ে মোতায়েন করা হয়েছে বাড়তি পুলিশ।

যে বিচারক তার বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করবেন, তাকে ‘একবারেই দলবাজ’ আখ্যা দিয়ে ট্রাম্প অভিযোগ করেছেন, ওই বিচারকের পরিবার ‘ট্রাম্পবিদ্বেষী হিসেবে সুপরিচিত’।

ট্রাম্পকে নিয়ে গণমাধ্যমে আগ্রহ বরাবরই ছিল। তার গ্রেপ্তার হওয়ায় বিশ্বের তাবৎ সংবাদমাধ্যম ফলাও করে এ-সংক্রান্ত খবর প্রচার-প্রকাশ করছে। ট্রাম্প টাওয়ারের সামনে ভিড় করেছেন অসংখ্য সাংবাদিক। সাংবাদিক-পুলিশের ভিড়ে ট্রাম্প-সমর্থকদের ব্যানার হাতে বিক্ষোভ করতেও দেখা গেছে।

তাদেরই একজন ভিতো দিচিয়ারা। ৭১ বছর বয়সী ভিতো একসময় ফক্স নিউজে কাজ করতেন। তার অভিযোগ, ট্রাম্পের বিরুদ্ধে এই অভিযোগ গঠন উদ্দেশ্যপ্রণোদিত, ষড়যন্ত্রের অংশ। আগামী বছরের নির্বাচনে জিতে ট্রাম্পের হোয়াইট হাউসে যাওয়া আটকাতেই তাকে অভিযুক্ত করা হয়েছে।

সম্পর্ক নিয়ে মুখ না খুলতে পর্নো তারকা স্টরমি ড্যানিয়েলসকে ঘুষ দেয়ার মামলায় বিচারের মুখোমুখি হলেন ট্রাম্প।

স্টরমির দাবি, ২০০৬ সালে দুজন শারীরিক সম্পর্কে জড়িয়েছিলেন। পরে ২০১৬ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের ঠিক আগে এ বিষয়ে মুখ না খুলতে ট্রাম্পের পক্ষ থেকে তাকে মোটা অঙ্কের ঘুষ দেয়া হয়েছিল। তবে এ অভিযোগ অস্বীকার করেছেন সাবেক প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প।