হেফাজত নিষিদ্ধ ও জামায়াতের নিবন্ধন বাতিলের দাবি

    0
    256
    হেফাজত নিষিদ্ধ ও জামায়াতের নিবন্ধন বাতিলের দাবি
    হেফাজত নিষিদ্ধ ও জামায়াতের নিবন্ধন বাতিলের দাবি

    ঢাকা, ১৪ মে : হেফাজতে ইসলামকে নিষিদ্ধ এবং জামায়াতে ইসলামীর নিবন্ধন বাতিলের দাবি জানিয়েছেন বাংলাদেশ ইমাম ওলামা সমন্বয় ঐক্য পরিষদ নেতৃবৃন্দ। আগামী ২০ জুনের মধ্যে সরকার এসব দাবি বাস্তবায়ন না করলে ২১ জুন সারাদেশের মসজিদসমূহে দোয়া মাহফিল, ২২ জুন বায়তুল মোকাররমের উত্তর গেটে মহাসমাবেশ এবং ২৩ জুন থেকে ঢাকায় লাগাতার অবোরধ কর্মসূচী পালন করার ঘোষণা দিয়েছে পরিষদ। গত ৫ মে হেফাজতে ইসলাম ঢাকা অবোরধের নামে মতিঝিল, শাপলা চত্বর ও বায়তুল মোকাররমসহ গোটা এলাকায় সহিংসতা চালিয়ে এবং পবিত্র কোরআন ও হাদিস শরীফ জ্বালিয়ে মুসলিম উম্মাহর ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হানার প্রতিবাদে মঙ্গলবার এক সংবাদ সম্মেলনে পরিষদ নেতৃবৃন্দ এ দাবি জানান এবং কর্মসূচীর ঘোষণা দেন।
    জাতীয় প্রেসক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে অনুষ্ঠিত এ সংবাদ সম্মেলনে বক্তৃতা করেন পরিষদের মহাসচিব মাওলানা শাহ মো: ওমর ফারুক, মাওলানা নূর মো: আহাদ আলী নীলফামারী, মাওলানা আরিফউদ্দিন সরওয়ার্দ্দী, অধ্যক্ষ আব্দুল্লাহ মো: শাহীন প্রমুখ। বক্তারা বলেন, বর্তমান নির্বাচিত সরকার সুন্দরভাবে দেশ পরিচালনা করছে। দেশে বৈদেশিক মূদ্রার রিজার্ভ ১৪’শ কোটি ডলার। বিশ্ব মন্দার মধ্যেও বাংলাদেশের অর্থনীতির এই চাঙ্গাভাব এবং দ্রুত গতিতে দারিদ্রতার হার কমছে বলে বিশ্বের প্রতিথযথা অর্থনীতিবিদরা যখন আশাব্যঞ্জক মন্তব্য করছেন, তখনই কিছু জঙ্গী সংগঠন দেশের সাফল্যের লাগাম টেনে ধরতে নানা অরাজকতা ও সহিংসতা চালিয়ে যাচ্ছে।
    বক্তারা বলেন, এর মূলে রয়েছে জামায়াতে ইসলাম ও হেফাজতে ইসলাম। আর তাদের ইন্ধন দিচ্ছে বিএনপি নেতৃত্বাধীন ১৮ দলীয় জোট। ১৮ দলীয় জোট দেশকে বা দেশের মানুষকে ভালবেসে কোন সহিংস কর্মসূচী দিচ্ছে না, তারা হেফাজতের কাঁধে বন্ধুক রেখে দেশের মানুষকে হত্যা করে ক্ষমতায় যেতে চাইছে। তাদের ক্ষমতায় যাওয়ার মূল উদ্দেশ্য মানবতাবিরোধী অপরাধীদের রক্ষা করে দেশকে ধর্মান্ধ জঙ্গী রাষ্ট্রে পরিণত করা।
    বক্তারা বলেন, কিন্তু দেশের শান্তিপ্রিয় ইমাম ওলামাগণ কখনই তা হতে দেব না। মানুষ হত্যা ও ধর্মগ্রন্থ পুড়িয়ে দেশে নৈরাজ্য সৃষ্টিকারীদের প্রতিহত করা হবে। তারার সরকারের কাছে ওই দুই জঙ্গী সংগঠনের নিবন্ধন বাতিল ও নিষিদ্ধের দাবি জানান। অন্যথায় কঠোর কর্মসূচী পালন করা হবে।