২১ জন কুর্দি সেনাকে খাঁচায় বন্দি:হত্যা করা হতে পারে

    0
    252

    “নতুন ভিডিওচিত্রে এক আইএস জঙ্গি বলেন, ‘আমরা পেশমারগা সেনাদের বলছি, আমাদের বিরুদ্ধে লড়াই ছেড়ে যাও। তা না হলে এই একই পরিণতি হবে তোমাদের; হয়তো খাঁচার ভেতর না হয় মাটির তলায়।”

    আমারসিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,২৩ফেব্রুয়ারী: ২১ বন্দি কুর্দি সেনাকে খাঁচায় বন্দি করে রাখার দৃশ্য সংবলিত নতুন একটি ভিডিওচিত্র প্রকাশ করেছে ইরাক ও সিরিয়ায় সক্রিয় জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেট বা আইএস জঙ্গিরা। শনিবার প্রকাশিত আইএসের এই ভিডিওচিত্রে সব বন্দিকে শেষ পর্যন্ত জীবিত দেখানো হলেও। তাদের সবারই শিরশ্ছেদ করা হয়েছে বলেই মনে করা হচ্ছে। কারণ ওই ভিডিওচিত্রে মাঝে মাঝেই মিসরীয় খ্রিস্টানদের হত্যার কিছু দৃশ্য সংযোজন করা হয়েছে। সংবাদসূত্র: সিএনএন, আল-জাজিরা
    আইএসের সর্বশেষ প্রকাশিত ভিডিওটিতে দেখা গেছে, ২১ জন কুর্দি সেনাকে খাঁচায় বন্দি করে রেখেছে আইএস জঙ্গিরা। তাদের সবারই পরনে কমলা রঙের পোশাক এবং মাথা নিচু করা। এর আগে আইএস যত বন্দি হত্যার ভিডিও প্রকাশ করেছে তার সবগুলোতেই বন্দিদের পোশাক ছিল কমলা রঙের। এ কারণেই এই বন্দি কুর্দি সেনাদের হত্যা করা হতে পারে বলে সন্দেহ দানা বাঁধছে। তবে এই ভিডিওটিতে নৃশংস কোনো হত্যাকা- দেখানো হয়নি। এতে সারি সারি খাঁচায় বন্দিদের সামনে একজন আইএস জঙ্গিকে তাদের সংগঠনের লোগোসমৃদ্ধ মাইক্রোফোন হাতে টেলিভিশন রিপোর্টারের ভঙ্গিতে কথা বলতে দেখা যায়। ওই জঙ্গি কয়েকজন বন্দির সাক্ষাৎকারও নিয়েছে এবং তারা (বন্দিরা) নিজেদের কুর্দি পেশমারগা সেনা বলে স্বীকার করেন। এ সময় ওই আইএস জঙ্গি কুর্দি পেশমারগা বাহিনীর উদ্দেশে হুশিয়ারি উচ্চারণ করে বলে, ‘আমরা পেশমারগা সেনাদের বলছি, আমাদের বিরুদ্ধে লড়াই ছেড়ে যাও। তা না হলে এই একই পরিণতি হবে তোমাদের; হয়তো খাঁচার ভেতর না হয় মাটির তলায়।’
    কুর্দি সেনাদের এই ভিডিওটির সত্যতা যাচাই করেছে বেশ কয়েকটি আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম। কুর্দি পেশমারগাদের প্রতি এই হুমকি ঠিক এমন সময় দেয়া হয়েছে যখন কুর্দি প্রেসিডেন্ট মাসুদ বারজানি কিরকুক সফরে গিয়ে কুর্দি যোদ্ধাদের রক্ষার জন্য প্রয়োজনীয় সব কিছু করার ঘোষণা দিয়েছেন। প্রসঙ্গত, গত সপ্তাহে আইএস ইরাকের কিরকুক শহরের রাস্তায় ১৭ জন কুর্দি সেনা আটকের ভিডিও প্রকাশ করে। এরপরই আইএস আক্রমণের পর প্রথমবার কিরকুক সফরে গিয়ে মাসুদ বারজানি ঘোষণা দেন, কুর্দিস্তানের আঞ্চলিক সরকার বন্দি যোদ্ধাদের উদ্ধারে চেষ্টার কোনো ক্রটি করবে না। সেই সঙ্গে তিনি আইএস জঙ্গিদের বিরুদ্ধে হুশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেন, কুর্দি যোদ্ধাদের হত্যা করা হলে চরম মূল্য দিতে হবে আইএসকে।’ তার এই ঘোষণার কয়েকদিনের মাথায় আবারো নতুন ভিডিও প্রকাশ করল আইএস। কুর্দি যোদ্ধাদের বন্দি অবস্থায় দেখানো এই ভিডিওতে তারা আরো বলেছে, ‘আমাদের এই লড়াই কুর্দি মুসলমানদের বিরুদ্ধে নয় বরং বিশ্বাসঘাতক ও তাদের দোসরদের বিরুদ্ধে।’ মূলত, কুর্দি সেনারা ইরাকে ও সিরিয়ায় আইএস দমনে ব্যাপক ভূমিকা রাখার কারণেই কুর্দি সেনাদের আটকের এই ভিডিওচিত্র প্রকাশ করে আতঙ্ক সৃষ্টির চেষ্টা করছে আইএস।
    সেনা বন্দি করা ও শিরশ্ছেদের পাশাপাশি আইএসের নৃশংসতার তালিকায় এখন যুক্ত হয়েছে মানুষ জীবন্ত পুড়িয়ে মারা। এর আগে এক জর্ডানি পাইলটকে পুড়িয়ে মারে তারা। এবার জানা গেছে, ইরাকের আনবার প্রদেশে আরো ৪৩ জনকে জীবন্ত পুড়িয়ে মেরেছে জঙ্গিরা এই নিয়ে গত দশ দিনে আইএস জঙ্গিরা প্রায় ৭০ জনকে পুড়িয়ে হত্যা করেছে। শনিবার স্থানীয় প্রাদেশিক কর্মকর্তারা জানান, রাজধানী বাগদাদ থেকে ২শ’ কিলোমিটার উত্তর পশ্চিমাঞ্চলীয় আল বাগদাদি শহরের আলবু ওবায়েদ নামের এক সুনি্ন গোত্র থেকে ওই ৪৩ জনকে ধরে নিয়ে যায় আইএস জঙ্গিরা। ধারণা করা হচ্ছে, নিহতরা স্থানীয় পুলিশ ও আধাসামরিক বাহিনী সাহওয়া ফাইটার্স দলের সদস্য ছিলেন। অপহরণের পর তাদের আইএস নিয়ন্ত্রিত শহর হেতে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানেই পরে তাদের একটি লোহার খাঁচায় ঢুকিয়ে জীবন্ত পুড়িয়ে মারা হয়।