৬ দিন পর লন্ডন প্রবাসী কন্যা উদ্ধারঃপ্রেম না অপহরন ?

    0
    591

    আমারসিলেট24ডটকম,জানুয়ারী: সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরে   নিখোজ হওয়ার ৬ দিন পর লন্ডন প্রবাসী কন্যা তামান্না বেগমকে  উদ্ধার ও আল-আমিনকে গ্রেফতার করেছে থানা পুলিশ।  সোমবার রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জগন্নাথপুর থানার এস আই লুৎফুর রহমানের নেতৃত্বে  পুলিশ উপজেলার পাটলী ইউনিয়নের কচুরকান্দি গ্রাম থেকে অভিযান চালিয়ে তামান্নাকে উদ্ধার ও অপহরনের অভিযোগে আল-আমিনকে গ্রেফতার করে।

    মঙ্গলবার অপহরনকারী আল-আমিনকে জেল হাজতে প্রেরন করা হয়েছে এবং  তামান্নাকে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য সিলেট পাঠানো হয়েছে। মামলার আইও এস আই লুৎফুর রহমান জানান, অপহরনকারী আল-আমিনকে গ্রেফতার করে জেল হাজতে প্রেরন ও অপহৃতাকে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে। মামলার অন্যান্য আসামীদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।
    উল্লেখ্য, উপজেলার পাটলী ইউনিয়নের ফরিদপুর গ্রামের আব্দুল গফুরের পুত্র আল-আমিন (২৫) একই গ্রামের লন্ডন প্রবাসী সৈয়দ মুহিবুর রহমানের কন্যা তামান্নাকে বিয়ের প্রস্তাব দেয়। মেয়ের পরিবার বিয়ের প্রস্তাব প্রত্যাখান করায়  ২১ জানুয়ারী বুধবার রাতে তামান্না কে খুজে পাওয়া যায়নি ।

    পর দিন তামান্নার মা জ্যেৎস্না বেগম বাদি হয়ে থানায়  অপহরনের অভিযোগ দায়ের করলে পুলিশ ছেলের অভিযোগে   মা সৈয়দুন্নেছা (৫৫) ও বোন শাবানা বেগম (৩৫)কে গ্রেফতার করে জেল হাজতে প্রেরন করে।

    অপরদিকে নাম প্রকাশ না করার শর্তে একটি সুত্র জানান, বিষয় টি অপহরন নয় প্রেম ঘটিত,কিন্তু আইনের সুবিধা নেওয়ার জন্য অপহরন বলা হচ্ছে।