বাগেরহাট সদর উপজেলায় আওয়ামীলীগ-বিএনপি অফিসে ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগ

    0
    936

    বাগেরহাট, ১১ আগস্ট : বাগেরহাট সদর উপজেলার গোটাপাড়া ইউনিয়নের মুক্ষাইট বাজার এলাকায় আওয়ামীলীগ ও বিএনপি কর্মীদের সংর্ঘষে এক পুলিশ সদস্যসহ উভয় গ্রুপের কমপক্ষে ২০ জন আহত হয়েছেন। এ সময় আওয়ামী লীগ অফিস ভাংচুর ও বিএনপি অফিসে অগ্নিসংযোগসহ ১৫টি মোটরসাইকেল ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগ করা হয়। শনিবার সন্ধ্যা ৬টায় এ সংর্ঘষ, ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটে। আহতদের চিতলমারী স্বাস্থ্যকেন্দ্র ও বাগেরহাট সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনার পর ওই এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন থাকলেও দুপক্ষের মধ্যে টানটান উত্তেজনা বিরাজ করছে।

    শনিবার সন্ধ্যায় মুক্ষাইট বাজারে গোটাপাড়া ইউনিয়ন বিএনপির অফিস উদ্বোধনের কথা ছিল। একই স্থানে গোটাপাড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের কর্মী সমাবেশ ছিল। এ নিয়ে দুই পক্ষের কর্মীদের মাঝে কথা কাটাকাটি থেকে এ সংর্ঘষ হয়। গোটাপাড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগে সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহমান হাওলাদার জানান, শনিবার সন্ধ্যায় তাদের কর্মী সমাবেশের উপর বিএনপি নেতাকর্মীরা অতর্কিত হামলা করে। তাদের হামলায় আওয়মী লীগের ৮-১০ জন কর্মী গুরুতর আহত হয়েছে। এ সময় হামলাকারীরা স্থানীয় আওয়ামী লীগ অফিস ভাংচুর ও ১০-১৫টি মোটর সাইকেলে অগ্নিসংযোগ করে।
    বাগেরহাট জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মোজাফ্ফর রহমান আলম জানান, শনিবার সন্ধ্যায় গোটাপাড়া ইউনিয়ন বিএনপির অফিস উদ্বোধনের কথা ছিল। এতে ঈর্ষাপরায়ন হয়ে আওয়ামী লীগের ক্যাডাররা তাদের অফিসে অগ্নিসংযোগ করে। এ সময় হামলাকারীদের হামলায় বিএনপির কমপক্ষে ১০-১২ জনকর্মী মারাত্মক আহত হয়েছে এবং ১০টি মোটরসাইকেল ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগ করেছে। এ ব্যাপারে বাগেরহাটের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার পংকজ চন্দ্র রায় জানান, ফায়ার সার্ভিস আগুন ও পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে নিয়েছে। ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে। দুই বিএনপি কর্মীকে আটক করা হয়েছে।