নতুন আরেকটি জোটের আত্মপ্রকাশ ঘটতে যাচ্ছে

    0
    1034

    আমারসিলেট 24ডটকম ,২৮সেপ্টেম্বর : দেশে নতুন আরেকটি রাজনৈতিক জোটের আত্মপ্রকাশ ঘটতে যাচ্ছে। জোট গঠন ও ঘোষণার সব কার্যক্রম ইতোমধ্যে চূড়ান্ত হয়েছে। অক্টোবর মাসের প্রথম সপ্তাহে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে সমমনা পাঁচটি দল নিয়ে নতুন এ জোটের ঘোষণা দেওয়া হবে।নির্দলীয় সরকারব্যবস্থা পুনঃপ্রবর্তনের দাবিতে আন্দোলনরত ১৮ দলীয় জোটের সঙ্গে এই নতুন জোট যুগপৎভাবে রাজপথে আন্দোলনে থাকবে।“পাঁচদলীয় ঐক্যজোটের” ব্যানারে নতুন এ জোট নির্বাচনকালীন নির্দলীয় সরকারের দাবি আদায়ের আন্দোলনের পাশাপাশি দুর্নীতিমুক্ত সুশাসন প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে কাজ করবে। জোট গঠন প্রক্রিয়া নিয়ে প্রধান বিরোধী দল বিএনপির নীতি-নির্ধারণী ফোরামের নেতাদের সঙ্গে সম্ভাব্য এই জোটের রাজনৈতিক দলের নেতাদের একাধিক বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে।

    নতুন এই জোটে যোগ দিচ্ছেন সাবেক রাষ্ট্রপতি ডা. এ কিউ এম বদরুদ্দোজা চৌধুরীর বিকল্পধারা বাংলাদেশ, ড. কামাল হোসেনের গণফোরাম, বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকীর কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ, আ স ম আবদুর রবের জেএসডি এবং মাহমুদুর রহমান মান্নার নাগরিক ঐক্য। এ ছাড়া নির্বাচন কমিশনে নিবন্ধনভুক্ত ও নিবন্ধনবিহীন আরো ১০টি রাজনৈতিক দল এই জোটে শরিক হবে বলে জানা গেছে।এইচ এম এরশাদের নেতৃত্বাধীন জাতীয় পার্টি নতুন এ জোটের অন্যতম শরিক থাকার কথা থাকলেও আপাতত দলটি জোটভুক্ত হচ্ছে না।

    নতুন রাজনৈতিক জোট গঠন প্রসঙ্গে জেএসডি সভাপতি আ স ম আবদুর রব বলেন, ১৮ দলীয় জোটের বাইরে নতুন জোট গঠনে আমরা নীতিগত সিদ্ধান্ত নিয়েছি।জোট গঠন প্রক্রিয়া এখন চূড়ান্ত। আগামী মাসের প্রথম সপ্তাহে এ জোটের আত্মপ্রকাশের সম্ভাবনা আছে।নতুন জোটে একটি লিয়াজোঁ কমিটি থাকবে। এ কমিটি কর্মসূচি প্রণয়ন এবং নির্বাচনকালীন নির্দলীয় সরকারের দাবি আদায়ে আন্দোলনরত অন্যান্য দলের সঙ্গে কাজ করবে।

    জেএসডি সভাপতি বলেন, আমাদের  জোটের প্রধান কাজ হবে দেশে সুস্থ রাজনীতির সংস্কৃতি ও রীতিনীতি গড়ে তোলা। বিশেষ করে চলমান রাজনৈতিক সংকট নিরসনে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে সব দলের অংশগ্রহণে নির্বাচন নিশ্চিত করা, লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড তৈরি, জবাবদিহিমূলক শাসনব্যবস্থা, স্বশাসিত উপজেলা ব্যবস্থাসহ সুশাসন নিশ্চিতকরণে ঐকমত্য হয়েছে।

    প্রস্তাবিত পাঁচদলীয় জোট লিডিং অপজিশনের সঙ্গে রাজপথে যুগপৎ আন্দোলনের কর্মসূচি পালন করবে। বিশেষ করে নির্দলীয় সরকারের দাবি আদায়ে আনুষ্ঠানিক অনানুষ্ঠানিক কর্মসূচি পালনে তারা মুখ্য ভূমিকা রাখবে। এ ছাড়া নতুন জোট ১৮ দলীয় জোটের সঙ্গে নির্বাচন প্রক্রিয়া, নতুন সরকারের ফর্মুলা, প্রার্থী মনোনয়ন, সরকারের অংশীদারিত্বসহ গুরুত্বপূর্ণ কয়েকটি বিষয়ে কাজ করার সুবিধার্থে একটি লিয়াজোঁ কমিটি গঠন করবে। এ কমিটি দুই জোটের মধ্যে সমন্বয় করবে বলে সুত্রে জানা যায়।